লালমাই লেকল্যান্ডে মাদ্রাসা ছাত্রীকে গনধর্ষণ

নিজস্ব প্রতিবেদক ● কুমিল্লা সদর দক্ষিণের লালমাই পাহাড়ের লেকল্যান্ড সংলগ্ন জঙ্গলে স্বপ্না (ছদ্মনাম) নামের এক মাদ্রাসা ছাত্রীকে জোরপূর্বক গণধর্ষন করেছে ৩ যুবক।

এঘটনায় সুমির মা সেলিনা বেগম বাদী হয়ে কুমিল্লা সদর দক্ষিণ মডেল থানায় ৩ যুবকের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেছেন।

সোমবার সকালে খবর পেয়ে স্থানীয়রা ধর্ষণকারী ইসমাইলকে আটক করে পুলিশে সোর্পদ করে।

জানা যায়, কুমিল্লা সদর দক্ষিণ উপজেলার বাগমারা উত্তর ইউনিয়নের দুতিয়াপুর গ্রামের আবদুল মান্নানের মেয়ে স্বপ্না (ছদ্মনাম) বরুড়ার লগ্নসার দাখিল মাদ্রাসায় ৭ম শ্রেণিতে পড়ে। অন্যান্য দিনের মত রবিবার সকাল সাড়ে ৭টায় স্বপ্না পায়ে হেটে মাদ্রাসায় যাওয়ার সময় দুতিয়াদিঘীর পাড়ে পৌছলে একই উপজেলার বারপাড়া ইউনিয়নের ধর্মপুর গ্রামের মোস্তফার ছেলে ইসমাইল, একই গ্রামের বাশার ও রাসেল তাকে জোরপূর্বক জিএনজিতে উঠিয়ে লালমাই পাহাড়ের লেকল্যান্ড পার্ক সংলগ্ন জৈনিক হারুনের ঘরের পাশের জঙ্গলে নিয়ে যায়। সেখানে দিনভর তারা পালাক্রমে তাকে ধর্ষণ করে। পরে বিকাল ৫টায় তারা সিএনজিতে স্বপ্নাকে বাড়ী পৌছে দেয়।

প্রথমে লজ্জায় কাউকে না বললেও শারিরীকভাবে অসুস্থ হয়ে পড়লে রবিবার রাতে স্বপ্না পরিবারের সদস্যদের জানায়। পরে খবরটি এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে দুতিয়াপুর গ্রামের যুবকরা ধর্ষক ইসমাইলকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে।

কুমিল্লা সদর দক্ষিণ মডেল থানার পরিদর্শক তদন্ত আবদুর রব কুমিল্লার বার্তা ডটকমকে বলেন, ধর্ষণের ঘটনায় ৩ জনের নামে মামলা হয়েছে। স্থানীয়দের সহায়তায় ইসলামাইল নামের একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। অন্যদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

error: দুঃখিত কুমিল্লার বার্তার কোন কনটেন্ট কপি করা যায় না।