মুক্তিযোদ্ধার সন্তানকে ‘আলবদর’ লিখে ‘প্রাণনাশের হুমকি’; জিডি

নিজস্ব প্রতিবেদক ● জাতীয় শোক দিবসে ক্লাস নেওয়ার অভিযোগ তুলে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের দাবির তিন দিনের মাথায় কোন রকম তদন্ত ছাড়াই এক মাসের বাধ্যতামূলক ছুটিতে পাঠানো গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষক মাহবুবুল হক ভুঁইয়া প্রাণনাশের ঝুঁকি ও নিরাপত্তাহীনতার কথা বলে থানায় সাধারণ ডায়েরি করেছেন।

ফেসবুকে এক ছাত্রলীগ কর্মীর হুমকিতে শুক্রবার রাত পৌনে ১২টার দিকে কুমিল্লার সদর দক্ষিণ মডেল থানায় এ সাধারণ ডায়েরি করেন বলে জানান ঐ শিক্ষক।

জানা যায়, গত ১৬ আগস্ট ছাত্রলীগ কর্মী ও নৃবিজ্ঞান বিভাগের ১১তম ব্যাচের শিক্ষার্থী সাদ ইবনে সাইদ তার ব্যক্তিগত ফেসবুক প্রোফাইলে প্রাণনাশের হুমকি দেন। সাদ ইবন সাইদ সাদ (Saad Ibn Sayed Sadd নামক ফেসবুক আইডি) তার ব্যক্তিগত প্রোফাইলে শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি ইলিয়াস হোসেন সবুজকে ‘মেনশন’ করে ঐ শিক্ষককে আলবদর উল্লেখ করে স্ট্যাটাসে লিখেন, ‘Eleas Hosen Sabuj ভাই এর হুকুম এর অপেক্ষায়, ভাই এর দয়াতে আজকের মত বেচে গেল আলবদর তারেক মাস্টার।। আর একটা রাত পেল দেশদ্রোহী টা শান্তিতে ঘুমাতে।। কিন্তু কালকে??? কি হবে রে তোর???’ তার দেয়া এই স্ট্যাটাসটি শাখা ছাত্রলীগের ১৩ জন নেতাকর্মীকে ট্যাগ করা হয়েছে।

তবে ওই শিক্ষক ১৮ আগস্ট বিষয়টি দেখেন বলে সাধারণ ডায়েরিতে উল্লেখ করেন। শুক্রবার রাতেই বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় কোটবাড়ি পুলিশ ফাঁড়িতে তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা নিতে দায়িত্ব দেয় সদর দক্ষিণ থানা।

ভূক্তভোগী শিক্ষক মাহবুবুল হক ভূঁইয়া বলেন, ‘আমি থানায় সাধারণ ডায়েরি করেছি। আইন-শৃক্সখলা বাহিনীর কাছে আমার প্রত্যাশা থাকবে যে দ্রুত তদন্তপূর্বক দোষীদের আইনের আওতায় আনবে।’

এ বিষয়ে কুমিল্লা সদর দক্ষিণ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নজরুল ইসলাম বলেন, ‘রাত পৌনে ১২টার দিকে মাহবুবুল হক ভূঁইয়া সাধারণ ডায়েরি করেন। বিষয়টি তদন্ত করার জন্য সংশ্লিষ্ট পুলিশ ফাঁড়িতে পাঠানো হয়েছে।’

error: দুঃখিত কুমিল্লার বার্তার কোন কনটেন্ট কপি করা যায় না।