ব্রাহ্মণপাড়ায় বিপুল পরিমান গাঁজা ও ইয়াবা উদ্ধার

ব্রাহ্মণপাড়া প্রতিনিধি ● জেলার ব্রাহ্মণপাড়া থানা পুলিশ উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৯৮ কেজি গাঁজা, ২শত পিচ ইয়াবাসহ তিন মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করে কুমিল্লা জেল হাজতে প্রেরণ করেছে।

এসময় পুলিশ একটি নাম্বার বিহীন সিএনজি অটোরিক্সা আটক করে।

থানা সূত্রে জানা যায়, থানার ওসি এসএএম শাহজাহান কবিরের নির্দেশে থানার এএসআই মোস্তাফিজুর রহমান ও সঙ্গীয় ফোর্স গতকাল রবিবার ভোরে উপজেলার মল্লিকার দীঘি রেল লাইনের পূর্ব পাশ দিয়ে দুই ব্যাক্তি মাথায় সাদা প্লাস্টিকের বস্তা নিয়ে শশীদল রেল স্টেশনের দিকে পায়ে হেটে যাবার সময় তাদের সন্দেহ হলে তাদের গতিরোধ করলে বস্তা ফেলে এক ব্যাক্তি দৌড়ে পালিয়ে যায়। অপর ব্যাক্তি কসবা উপজেলার শাহাপুর গ্রামের মজিদ মিয়ার ছেলে মোঃ ইকবাল হোসেন (৩৭)কে পুলিশ আটক করে। বস্তা তল্লাশী করে দুটি বস্তায় পলিথিনে মোড়ানো ২৪টি বান্ডেলে ২ কেজি করে মোট ৪৮ কেজি গাঁজা উদ্ধার করে। এসময় আটককৃত ইকবালের প্যান্টের পকেট তল্লাশী করে ডান পকেটে পলিথিনে মোড়ানো ২শত পিচ ইয়াবা উদ্ধার করে। এএসআই মোস্তাফিজ বাদী হয়ে আটককৃত ইকবালকেসহ পলাতক মাদক ব্যবসায়ী ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার নারায়নপুর গ্রামের মৃত জয়নাল আবেদীনের ছেলে আলী আশ্বর (৪৮) কে আসামী করে থানায় মাদক আইনে মামলা করেছে।

অপর দিকে ওসি শাহজাহান কবিরের নির্দেশে থানার এসআই আতিকুজ্জামান, এএসআই আলআমিন ও সঙ্গীয় ফোর্স গত শনিবার সকাল ১০টায় সিদলাই প্রজাপতি পাকা সড়কের সিদলাই শাহী ঈদগাহ কবরস্থানের পশ্চিমপাশে এলাকাবাসী কর্তৃক আটককৃত একটি সিএনজি অটোরিক্সা ও ৫০ কেজি গাঁজাসহ কসবা উপজেলার নোয়াপাড়া গ্রামের আবদুর রহমানের ছেলে মোঃ স্বপন (২৮) এবং ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার দক্ষিণ চান্দলা গ্রামের মৃত নান্নু মিয়ার ছেলে মোঃ আলাউদ্দিন (২২) কে গ্রেপ্তার করে।

থানার এসআই আতিকুজ্জামান বাদী হয়ে আটককৃত দুই জনসহ পলাতক অজ্ঞাত আরও ২ জনকে আসামী করে থানায় মাদক আইনে মামলা করেছে। থানার ওসি এসএএম শাহজাহান কবির সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, রবিবার আসামীদের কোর্টের মাধ্যমে কুমিল্লা জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

error: দুঃখিত কুমিল্লার বার্তার কোন কনটেন্ট কপি করা যায় না।