বুড়িচংয়ে পরিত্যক্ত বোমা বিস্ফোরণে কিশোর আহত

সৌরভ মাহমুদ হারুন ● বুড়িচং উপজেলা সদরে আবর্জনার স্তূপে পড়ে থাকা বোমা বিস্ফোরণে এক কিশোর আহত হয়েছে। তার ডান হাতসহ শরীরের বিভিন্ন অংশ ক্ষতবিক্ষত হয়ে গেছে। শুক্রবার দুপুরে এ ঘটনা ঘটে।

ঘটনাস্থল থেকে দুটি হাতে তৈরি বোমা উদ্ধার করা হয়েছে।

আহত কিশোরের নাম মো. নাইম (১৬)। সে লাকসাম উপজেলার জাহাননগর হরিজিরন এলাকার মৃত শুকুর মিয়ার ছেলে। সে তার মাকে নিয়ে কুমিল্লার শাসনগাছা ঈদগাহ এলাকায় ভাড়া থাকে। প্লাস্টিকের বোতল, টিনের কৌটা ও লোহার টুকরা এসব কুড়ায় সে।

নাইমকে প্রথমে বুড়িচং উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এবং পরে কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

স্থানীয় বাসিন্দা ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, উপজেলা সদরের অগ্রণী ব্যাংকের পেছনে বুড়িচং উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. বাছির খানের বাড়ির পাশে জগবন্ধু কর্মকার নামের একজনের একটি জায়গা পরিত্যক্ত অবস্থা রয়েছে। সেখানে লোকজন ময়লা-আবর্জনা ফেলে। নাঈম আবর্জনার স্তূপ থেকে বোতল কুড়িয়ে বস্তায় নিচ্ছিল। এ সময় সেখানে বিকট শব্দে বিস্ফোরণ ঘটে। আশপাশের লোকজন ছুটে এসে তাকে রক্তাক্ত অবস্থায় দেখতে পায় এবং স্থানীয় হাসপাতালে পাঠায়। পরে সেখানে কালো টেপ মোড়ানো বোমাসদৃশ্য দুটি বস্তু দেখতে পেয়ে বুড়িচং থানা পুলিশে খবর দেয়।

খবর পেয়ে বুড়িচং থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আমজাদ হোসেন ঘটনাস্থলে এসে ঘটনাস্থল ঘিরে রাখেন।

আহত শিশুটি জানায়, সে সকাল ৯টায় বুড়িচং বাজারে আসে। বস্তা নিয়ে বাজারের আশপাশে পড়ে থাকা প্লাস্টিকের বোতল, টিনের কৌটা ও লোহার টুকরা কুড়াচ্ছিল।