বরুড়ায় ছিনতাই হওয়া টাকা ও মোবাইল উদ্ধার!

বিএম মহসিন ● বরুড়ায় গত ৬ই মে চাঞ্চল্যকর ভাবে ছিনতাই হওয়া টাকা ও মোবাইলসহ একজনকে গ্রেফতার করেছে বরুড়া থানা পুলিশ। জানা যায়, বরুড়ায় গত ৬ই মে উপজেলার ঝলম আড্ডা সড়কের বটতলী নামক স্থানে ব্রিটিশ এমেরিকান টোব্যাকো কোম্পানীর সেল্স রিপ্রেজেনটেটিভকে কুপিয়ে ৩ লক্ষ ২৯ হাজার টাকা এবং একটি মোবাইল সেট ছিনতাই করে নিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, ৬ই মে শনিবার বিকেল প্রায় ৫টার দিকে ব্রিটিশ এমেরিকান টোব্যাকো কোম্পানীর সেল্স রিপ্রেজেনটেটিভ সিগারেট ভর্তি কাভার্ডভ্যান নিয়ে আড্ডা বাজারে রওনা হওয়ার পথে ৩/৪ জন দুর্বৃত্তের একটি দল গাড়ির গতিরোধ করে সেলস রিপ্রেজেনটেটিভ আবদুর রশিদ (৩৪) কে হাত ও পায়ে এলোপাতারি কুপিয়ে গুরুতর জখম করে জোরপূর্বক ৩ লক্ষ ২৯ হাজার টাকা এবং ১টি স্যামসং মোবাইল ছিনতাই করে পালিয়ে যায়।

আহত আবদুর রশিদকে স্থানীয়রা চিকিৎসার জন্য বরুড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসে। তার অবস্থার অবনতি দেখে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। আহত আবদুর রশিদ চাঁদপুর জেলার শাহরাস্তি থানার হাটপাট গ্রামের হাবিবুল্লাহর পুত্র।

এ ঘটনার খবর পেয়ে সাথে বরুড়া থানা অফিসার ইনচার্জ মাহবুব মোর্শেদসহ পুলিশের একটি টিম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে ঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতার করতে তৎপর হয়ে পড়ে। পরে এ সিগারেট কোম্পানীর লোক বাদী হয়ে বরুড়া থানায় অজ্ঞাতনামা ৩/৪ ব্যক্তির বিরুদ্ধে একটি ছিনতাই মামলা দায়ের করেন। পুলিশ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অফিসার ইনচার্জ মাহবুব মোর্শেদের নির্দেশে পরিদর্শক (তদন্ত) ইকবাল বাহার মজুমদার ও এসআই ফারুক কামাল সঙ্গীয় নিয়ে গত বৃহস্পতিবার সকালে ঝলম গ্রামে অভিযান চালিয়ে শহীদুল ইসলামের পুত্র ওয়াশকুরুনি (৩৫) কে তার বাড়ী থেকে গ্রেফতার করে।

বিজ্ঞ আদালতে তার জবানবন্দিতে ওয়াশকুরুনি এ ঘটনার সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে এবং তার তথ্য অনুযায়ী তার কাছ থেকে ১ লক্ষ ২৬ হাজার ও স্যামসং মোবাইল সেটটি উদ্ধার করে।

এ ব্যাপারে বরুড়া থানার ওসি মাহবুব মোর্শেদ জানান, ছিনতাইয়ের ঘটনার পর পর আমি তাদেরকে গ্রেফতার করতে বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়েছি। ইতিমধ্যে একজন গ্রেফতার সহ লুন্ঠিত কিছু টাকা ও মোবাইল সেট উদ্ধার করা হয়েছে। বাকীদেরকে ধরতে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।