প্রকৌশলী থেকে এখন তাঁরা ‘জঙ্গি’

নিজস্ব প্রতিবেদক ● দুজন ছিলেন প্রকৌশলী। একজন মাদ্রাসার শিক্ষার্থী। সাভারের রাজফুলবাড়িয়া থেকে অস্ত্র, বিস্ফোরকসহ গ্রেপ্তার হয়েছেন তাঁরা। র‍্যাব বলছে, তাঁরা নব্য জেএমবির সারোয়ার-তামিম গ্রুপের সদস্য। ঢাকাসহ বিভিন্ন জায়গায় তাঁদের নাশকতার পরিকল্পনা ছিল।

যাত্রীবাহী বাস থেকে গ্রেপ্তার হওয়া এই তিনজন হলেন, মোস্তফা মজুমদার (৩২), তামিম দ্বারী (৩২) ও কামরুল হাসান (২৬)।

মোস্তফা মজুমদার কুমিল্লা পলিটেকনিক থেকে ইলেকট্রিক্যাল ডিপ্লোমা করেন। ২০০৭ সালে পাওয়ার গ্রিড কোম্পানি অব বাংলাদেশ লিমিটেডে উপসহকারী প্রকৌশলী হিসেবে যোগ দেন। তামিম দ্বারীর সঙ্গে পরিচয়ের পর জঙ্গিবাদে জড়িয়ে পড়েন। এ বছরের জানুয়ারিতে তিনি বাড়ি ছাড়েন।

কামরুল হাসান ২০০৬ সালে কুমিল্লার একটি মাদ্রাসায় পড়ার সময় জঙ্গিবাদে জড়িয়ে পড়েন। গত নভেম্বর মাসে তামিম দ্বারীর সঙ্গে যোগাযোগ করে তিনি ঘর ছাড়েন বলে ব্রিফিংয়ে জানানো হয়।

শুক্রবার সকালে রাজধানীর কারওয়ান বাজারে র‍্যাবের মিডিয়া সেন্টারে সংবাদ ব্রিফিংয়ে গণমাধ্যম শাখার পরিচালক মুফতি মাহমুদ খান এসব কথা জানান।

মুফতি মাহমুদ জানান, বৃহস্পতিবার রাত পৌনে নয়টার দিকে র‍্যাব-৪-এর একটি দল রাজফুলবাড়িয়ায় ঝিটকা-গাবতলীগামী ভিলেজ লাইন পরিবহনের একটি বাস থেকে তাঁদের গ্রেপ্তার করে। তিনজনের কাছ থেকে বিদেশি একটি পিস্তল, পাঁচটি গুলি, দুটি ম্যাগাজিন, প্রায় সোয়া কেজি বিস্ফোরক, তিনটি চাকু, একটি চাপাতি, ল্যাপটপসহ বিভিন্ন দেশের বৈদেশিক মুদ্রা উদ্ধার করা হয়।

ব্রিফিংয়ে জানানো হয়, তামিম দ্বারীর আগের নাম ছিল গৌরাঙ্গ কুমার মণ্ডল। তিনি ২০০৩ সালে উচ্চমাধ্যমিকে পড়ার সময় ধর্মান্তরিত হন। ২০০৫ সালে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে সাত থেকে আট মাস পড়াশোনা করেন। ২০০৬ সালে চট্টগ্রামে মেরিন একাডেমিতে ভর্তি হন। সেখান থেকে পাস করে ২০১০ সাল থেকে ২০১৪ পর্যন্ত বাংলাদেশ শিপিং করপোরেশনের বাংলার কাকলিসহ বিভিন্ন জাহাজে প্রকৌশলী হিসেবে চাকরি করেন তামিম দ্বারী।

মুফতি মাহমুদ বলেন, জাহাজে চাকরির সময় তামিন দ্বারী সহকর্মী আবু বক্করের মাধ্যমে নব্য জেএমবি নেতা তামিম চৌধুরীর সঙ্গে ঢাকায় দেখা করেন। গত বছরের আগস্টে জঙ্গি নেতা তামিম চৌধুরী নিহত হলে পড়াশোনা শেষ না করে বসুন্ধরা-৪ জাহাজে যোগ দেন তিনি। গত নভেম্বরে চাকরি ছেড়ে চলে যান। তিনি আবদুল্লাহ আল হাসান, আজিজুর রহমান, আবদুল্লাহ আল জাফরী, আমীর হামজা, আল হুযাইফা এ রকম বিভিন্ন নামে পরিচিত ছিলেন।