পরকিয়ার কারনেই হত্যা করা হয় রাসেলকে

নিজস্ব প্রতিবেদক ● চৌদ্দগ্রামের শুভপুর গ্রামের রাসেল হত্যা মামলার রহস্য উদঘাটন করেছে পুলিশ। আর সম্প্রতি কুমিল্লা মহানগরীর ইপিজেড সংলগ্ন রাজাপাড়া এলাকায় উদ্ধার হওয়া কঙ্কালের পরিচয়ে বেড়িয়ে এসেছে আটক ঘাতকদের জিজ্ঞাসাবাদে।

বৃহস্পতিবার বিকেলে কুমিল্লা পুলিশ সুপার কার্যালয়ে এক প্রেস ব্রিফিং’এ পুলিশ সুপার মোঃ শাহ আবিদ হোসেন এই চাঞ্চল্যকর হত্যা এবং অজ্ঞাত একটি কঙ্কালের রহস্যের ইতি টানেন।

জানা যায়, জেলার চৌদ্দগ্রাম উপজেলার শুভপুর গ্রামের সিএনজি চালক রাসেল (২১)কে গত ১৮ জুন বাড়ি থেকে তার পূর্ব পরিচিত কয়েকজন যুবক ডেকে নিয়ে যায়। পরে সে বাড়িতে না ফিরে আসলে তার পিতা জয়নুল আবেদীন চৌদ্দগ্রাম থানায় শাহীন, গিয়াস উদ্দিন, টুংকু মিয়া ও একরামুল হক পাগলাকে আসামী করে মামলা রুজু করে।

মামলায় তিনি উল্লেখ করেন, ১৮ জুন রাসেলকে সিএনজিসহ ভাড়ার কথা বলে উল্লেখিতরা ডেকে নিয়ে যায়। মামলার পর পুলিশ প্রথমে শাহীনকে আটকে উদ্ধার করে ছিনতাই হওয়া সিএনজি অটোরিক্সা। এরপর একরামুল হক ও সন্দেহভাজন আসমা আক্তার সাথী নামের অপর এক যুবতীকে এরপর প্রযুক্তির মাধ্যমে চট্টগ্রাম থেকে টুংকুকে গ্রেফতার করলে সে পুলিশের কাছে জানায়, তার বড়ভাই গিয়াসউদ্দিন, শাহীন, অলিআহমেদ মিলে রাসেলকে হত্যা করে কুমিল্লা মহানগরীর ইপিজেড এলাকায় ঝোঁপের মাঝে ফেলে রেখেছে।

পুলিশ এরপর ফেনী থেকে গিয়াস উদ্দিনকে আটক করলে সে রাসেল হত্যার স্বীকার করে জানায়, তার ভাবী আসমার সাথে রাসেলের পরকীয়া ছিল। পরবর্তীতে গিয়াসের সাথে আসমা প্রেমে জড়ালে রাসেল বাধাঁ দেয় এবং গিয়াসের বিরুদ্ধে আসমার কাছে কুৎসা রটনা করে। ফলে সে ক্ষিপ্ত হয়ে এবছরের ১৭ জুন শাহীন, অলিকে নিয়ে রাসেলের বাড়ির পাশে একটি নির্মানাধীন ভবনে রাসেলকে হত্যার পরিকল্পনা নেয়।

এরপর ১৮ জুন তাকে ডেকে কুমিল্লা এসে দিনভর ঘুরাফেরা করে। রাত ১১ টায় তারা কুমিল্লা ইপিজেড এলাকার রাজাপাড়া সংলগ্ন এলাকায় পৌঁছে ইয়াবা সেবনের কথা বলে রাস্তার পাশে ঝোপের আড়ালে যায়। এরপর ৩ জনে মিলে তাকে গলায় বেল্ট পেঁচিয়ে শ্বাসরোধে হত্যা করে লাশ ফেলে পালিয়ে যায়।

উল্লেখ্য গত ৮ জুলাই কুমিল্লা ইপিজেড সংলগ্ন এলাকায় অজ্ঞাত কঙ্কাল উদ্ধারের পর পুলিশ লাশের পরিচয় উদঘাটনে বিভিন্নভাবে তৎপরতা চালালেও কোন ক’লকিনারা করতে পারেনি। পরবর্তীতে চৌদ্দগ্রামের শুভপুরের রাসেল হত্যার ঘাতকদের আটকের পর তাদের স্বীকারোক্তীর ভিত্তিতে কঙ্কাল রহস্যেরও অবসান হয়।

error: দুঃখিত কুমিল্লার বার্তার কোন কনটেন্ট কপি করা যায় না।