নাঙ্গলকোটে অবৈধ দখল উচ্ছেদে হামলা; আহত ১

নাঙ্গলকোট প্রতিনিধি ● জেলার নাঙ্গলকোট বাজারের সোনালী ব্যাংকের পেছন দিকে সরকারী খাস ভূমি দখল করে অবৈধভাবে দোকান নির্মান করার সময় সেটি উচ্ছেদ করেছে উপজেলা প্রশাসন। এসময় দখলদারের হামলায় স্থানীয় হরিপুর গ্রামের আবুল কালাম নামের এক শ্রমিক আহত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে নাঙ্গলকোট বাজারে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় মামলার প্রস্ততি নিচ্ছেন বলে জানিয়েছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও দায়িত্বপ্রাপ্ত সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোহাম্মদ সাঈদুল আরীফ।

নাঙ্গলকোট সদর তহসিল অফিস ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার দুপুরে নাঙ্গলকোট বাজারের সোনালী ব্যাংকের পেছনে সরকারী খাস জমিতে একটি টিনের ঘর তৈরী করে এর ভিতরে অবৈধভাবে পাকা দোকান ঘর নির্মাণ করছিলেন পৌর এলাকার গোত্রশাল গ্রামের আবদুর রহীমের ছেলে মো. শাহজালাল। এসময় খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ সাঈদুল আরীফের নির্দেশনা অনুযায়ী সদর তহসিল অফিসের ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা মো. মোজাম্মেল হোসেন ও অন্যান্য কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ কয়েকজন শ্রমিক নিয়ে সেটি দ্রুত উচ্ছেদ করতে যায়। ওই অবৈধ দখল উচ্ছেদকালে দখলদার মো. শাহজালাল ও তার ছেলে সোহেল মিলে উচ্ছেদকারী শ্রমিক আবুল কালামের উপর আকস্মিক হামলা চালিয়ে তাঁকে রক্তাক্ত আহত করে পালিয়ে যায়। পরে তাঁকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে বাড়ীতে পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে।

এ বিষয়ে নাঙ্গলকোট সদর তহসিল অফিসের ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা মো. মোজাম্মেল হোসেন বলেন, সরকারী খাস জমিতে অবৈধভাবে দোকান ঘর নির্মাণের খবর পেয়ে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোহাম্মদ সাঈদুল আরীফ মহোদয়ের নির্দেশে দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে নির্মানাধীন ওই ঘর উচ্ছেদ ও অন্যান্য মালামাল অপসারন করা হয়েছে।

জানতে চাইলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও দায়িত্বপ্রাপ্ত সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোহাম্মদ সাঈদুল আরীফ বলেন, অবৈধভাবে সরকারী জায়গা দখলের খবর পেয়ে সেটি দ্রুত উচ্ছেদ করা হয়েছে। এ ঘটনায় অবৈধ দখল ও শ্রমিকের উপর হামলার জন্য মামলা দায়ের করা হবে।

এ ব্যাপারে নাঙ্গলকোট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ আইয়ূব বলেন, সরকারী সম্পত্তি অবৈধ দখলের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়েছি। তবে অবৈধ দখলদার বা হামলাকরীরা পালিয়ে যাওয়ার কারনে কাউকে গ্রেফতার বা আটক করা সম্ভব হয়নি।

error: দুঃখিত কুমিল্লার বার্তার কোন কনটেন্ট কপি করা যায় না।