দাউদকান্দিতে যুবক খুন, আটক ২

নিজস্ব প্রতিবেদক ● পাওনা টাকা চাওয়ায় দাউদকান্দি উপজেলায় ছুরিকাঘাতে খুন হয়েছেন ইমন হোসেন (২৯) নামে এক যুবক।

এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে নাঈম হোসেন (২৪) ও রুবেল হোসেন (২৬) নামে দু’জনকে আটক করেছে দাউদকান্দি মডেল থানা পুলিশ। ইমন হত্যার মূল ঘাতক বলে সন্দেহভাজন সাদ্দাম হোসেন পলাতক।

মঙ্গলবার রাতে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইমনের মৃত্যু হয়। নিহত ইমন উপজেলার গৌরীপুর ইউনিয়নের উত্তর পেন্নাই গ্রামের হুমায়ুন কবিরের ছেলে।

আটককৃত নাঈম একই গ্রামের আবু কালামের ছেলে ও রুবেল মজিবুর রহমানের ছেলে।

স্থানীয়রা জানান, ইমনের কাছ থেকে ৫ হাজার টাকা ধার নেন তার বন্ধু দক্ষিণ পেন্নাই গ্রামের রবিউল্লাহ’র ছেলে সাদ্দাম হোসেন। পাওনা টাকা ফেরত দেবেন বলে গত ২১ এপ্রিল সন্ধ্যায় ইমনকে বাড়িতে ডেকে নেন সাদ্দাম। পরে তর্ক-বিতর্কের এক পর্যায়ে ইমনকে ছুরিকাঘাত করেন সাদ্দাম। ইমনের চিৎকারে সাদ্দামসহ অন্যরা পালিয়ে যান। পরে স্থানীয়রা তাকে দ্রুত উদ্ধার করে গৌরীপুর হাসপাতালে নিয়ে আসেন। প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে চিকিৎসকের পরামর্শে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

নিহতের বোন তানিয়া আক্তার বলেন, ‘২১ এপ্রিল সন্ধ্যায় আমার ভাইকে দু’জন লোক এসে ডেকে নিয়ে গেছেন। তিনি বাড়ি থেকে যেতে চাননি। কিছুক্ষণ পর বাড়িতে খবর আসে, দক্ষিণ পাড়ার সাদ্দামসহ ৪/৫ জন মিলে আমার ভাইকে মারছেন। ইমনের দেড় বছর বয়সের একটি ছেলে আছে। গত বছর আমার ভাইয়ের বৌ দুর্ঘটনায় মারা যান’।

গৌরীপুর তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ পরিদর্শক মো. আসাদুজ্জামান বলেন, পাওনা টাকা নিয়ে দুই বন্ধুর তর্ক-বিতর্কের ঘটনায় একজন খুন হয়েছেন। এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে দু’জনকে আটক করা হয়েছে।