দাউদকান্দিতে ছাত্রী ধর্ষণ চেষ্টা মামলায় শিক্ষক আটক

দাউদকান্দি প্রতিনিধি ● দাউদকান্দির গৌরীপুর পেন্নাই জান্নাতুল ফেরদাউস মহিলা মাদ্রাসার প্রথম শ্রেণির এক ছাত্রীকে (৬) ওই মাদ্রাসার শিক্ষক মো. এনামুল হক (৩৫) কর্তৃক ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে। আভিযুক্ত শিক্ষক মো. এনামুল হক কিশোরগঞ্জ জেলার মিঠামইন উপজেলার পাথারকান্দি গ্রামের ফরজ আলীর ছেলে।

পুলিশ জানায়, উপজেলার গৌরীপুর পেন্নাই জান্নাতুল ফেরদাউস মহিলা মাদ্রাসার আবাসিক ছাত্রী তার কক্ষে ঘুমিয়ে ছিল। মঙ্গলবার রাতে ওই ছাত্রীকে ডেকে এনে ধর্ষণের চেষ্টা চালায় আভিযুক্ত শিক্ষক এনামুল হক। এ সময় ছাত্রীর চিৎকারে আশে-পাশের কক্ষের অন্যান্য শিক্ষক ও ছাত্রীরা দৌড়ে এসে তাকে উদ্ধার করে। পরে মাদ্রাসার কর্তৃপক্ষ আভিযুক্ত ওই শিক্ষকে আটক করে গৌরীপুর ফাড়ির পুলিশকে খবর দেয়। পুলিশ এসে তাকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে যায়।

বুধবার দুপুরে শিশুটির বাবা বাদী হয়ে ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে দাউদকান্দি মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মামলা দায়ের পর ওই শিক্ষককে কুমিল্লা জেল হাজাতে প্রেরণ করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে দাউদকান্দি মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মো. মিজানুর রহমান জানান, ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগে মাদ্রাসা শিক্ষককে গ্রেফতার করে মামলা দায়েরের পর কুমিল্লা জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।