তিতাসে ডাকাতির প্রস্তুুতিকালে অস্ত্র সহ ২ ডাকাত আটক

তিতাস প্রতিনিধি ● তিতাসে ২০ মামলার আসামী বাবুকে (২৬) ডাকাতির প্রস্তুুতিকালে দেশীয় অস্ত্রসহ আন্তজেলা ২ ডাকাতকে আটক করেছে থানা পুলিশ।

শনিবার দিবাগত রাত দেড়টায় গৌরীপুর-হোমনা সড়কের শিবপুর বাস ষ্টান্ডে তাকে আটক করা হয়। এসময় তার অপর সঙ্গি রাসেলকে (২২) আটক করা হয়।

আটককৃত বাবু উপজেলার শাহপুর গ্রামের রোশন আলীর ছেলে ও রাসেল ভাজরা গ্রামের শাহজাহানের ছেলে।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, তিতাস থানার এসআই কমল মালাকার গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শনিবার রাত প্রায় দেড়টায় গৌরীপুর-হোমনা সড়কের শিবপুর বাস স্ট্যাশনে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে বাবুসহ পার্শ্ববতী উপজেলার ভাজরা গ্রামের শাহজাহানের ছেলে রাসেলকে আটক করে। এসময় তাদের কাছ থেকে ১টি দেশিয় এলজি, ১টি কার্তুজ, ২টি ক্রিজ ও ২টি লাঠি উদ্ধার করে। এ সময় অন্য ডাকাতরা পালিয়ে যায়। বাবুর বিরুদ্ধে তিতাস থানায় ২০টি মামলা রয়েছে, এর মধ্যে ১০টিতে ওয়ারেন্টভূক্ত।

এদিকে একই রাতে পৃথক অভিযানে হত্যা মামলারসহ একাধিক মামলার ওয়ারেন্ট ভূক্ত আসামী জসিমকে (৩৫) ইয়াবাসহ গ্রেফতার করেছে তিতাস থানার চৌকশ এসআই কাজী হুময়ান কবিরসহ সঙ্গীয় ফোর্স। জসিম উপজেলার কড়িকান্দি সদর ইউনিয়নের কড়িকান্দি গ্রামের সফি ভূইয়ার ছেলে।

তিতাস থানার অফিসার ইনচার্জ নুরুল আলম জানান, জসিম, বাবু ও রাসেলসহ ৬জনের বিরুদ্ধে মাদক, ডাকাতি ও অস্ত্র আইনে পৃথক মামলা দায়ের করা হয়েছে। বাকি আসামীদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যহত রয়েছে। বাবু ও রাসেলের স্বীকারোক্তিতে অন্য ৪জনকে আসামী করা হয়েছে। তিনি অস্ত্র ও মাদক উদ্ধারে এলাকাবাসীর সহযোগিতা কামনা করেন।

error: দুঃখিত কুমিল্লার বার্তার কোন কনটেন্ট কপি করা যায় না।