ছাত্রীর অশ্লীল ভিডিও ছড়িয়ে দেয়ার অভিযোগে আটক ৩

দেবিদ্বার প্রতিনিধি ● দেবিদ্বারে নবম শ্রেণীর এক স্কুল ছাত্রীকে(১৪) অপহরণপূর্বক তুলে নিয়ে ৩ বখাটে কর্তৃক ধর্ষণের চেষ্টা এবং ধর্ষণ চেষ্টার অশ্লীল ভিডিও মোবাইলে ধারন করে তা গ্রামের লোকজনের মাঝে ছড়িয়ে দেয়ার অভিযোগে মঙ্গলবার রাতে তিন যুবককে গ্রেফতার করেছে থানা পুলিশ। এবং গ্রেফতারকৃত তিন যুবকের ৩দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছে আদালত। ঘটনাটি ঘটেছে দেবিদ্বার উপজেলার সুলতানপুর ইউনিয়নের সুলতানপুর (গজারিয়া) গ্রামে।

গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে দেবিদ্বার থানার উপ-পরিদর্শক(এস, আই) সাইদুর রহমান, উপ-পরিদর্শক(এস, আই) মোরশেদুল আলম, সহকারী উপ-পরিদর্শক(এ, এস, আই) আবু হানিফ’র নেতৃত্বে একদল পুলিশ উপজেলার সুলতানপুর গ্রামের নিজ বাড়ি থেকে কৌশলে মোখলেসুর রহমানের পুত্র মোঃ সাইদ হাসান(২০), আব্দুর রাজ্জাকের পুত্র মোঃ রুবেল হোসেন(১৯) ও আবুল হোসেনের পুত্র ইউসুফ(১৯) সহ ৩ ধর্ষককে আটক করে বুধবার সকালে কুমিল্লা কোট হাজতে চালান করে।

স্থানীয় ও মামলা সূত্রে জানা যায়, দেবিদ্বার উপজেলার সুলতানপুর ইউনিয়নের সুলতানপুর (গজারিয়া) গ্রামে নবম শ্রেণীর ওই স্কুল ছাত্রী গত ২৭ মে রাতে প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে ঘর থেকে বের হয়। ওই সময় একই গ্রামের মোখলেছুর রহমানের পুত্র মোঃ সাইদ হাসান, আবদুর রাজ্জাকের পুত্র মোঃ রুবেল হোসেন ও আবুল হোসেনের পুত্র ইউসুফ স্কুল ছাত্রীকে জোর করে বাড়ির পাশে পুকুর পাড়ে নিয়ে ধর্ষনের চেষ্টা করে এবং ধর্ষনের চেষ্টার অশ্লীল ভিডিও মোবাইলে রেকর্ড করে তা গ্রামের লোকজনের মাঝে ছড়িয়ে দেয়।

মঙ্গলবার রাতে স্কুল ছাত্রীর পিতা বাদী হয়ে ওই তিন যুবকের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করেন। রাতে পুলিশ অভিযান চালিয়ে ওই তিন যুবককে গ্রেফতার করে এবং বুধবার দুপুরে আদালতে হাজির করে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য রিমান্ড চাইলে জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট বিপ্লব দেবনাথ ৩ দিন করে তাদের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

error: দুঃখিত কুমিল্লার বার্তার কোন কনটেন্ট কপি করা যায় না।