চৌদ্দগ্রামে স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে বখাটে গ্রেফতার

চৌদ্দগ্রাম প্রতিনিধি ● বাই সাইকেল যোগে বাড়ি পৌঁছে দেওয়ার কথা বলে চৌদ্দগ্রাম উপজেলায় ৭ বছর বয়সি স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণ করেছে বখাটে ইসমাইল। ধর্ষণের ঘটনায় অভিযুক্ত মোঃ ইসমালকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। রোববার দুপুরে চৌদ্দগ্রাম উপজেলার কনকাপৈত ইউনিয়নের বুদ্দিন গ্রামে ঘটনাটি ঘটে।

গ্রেফতারকৃত ধর্ষণের আসামী মোঃ ইসমাইল (১৬) উপজেলার কনকাপৈত ইউনিয়নের বুদ্দিন গ্রামের বেলাল হোসেনের ছেলে। স্কুর ছাত্রী পাশ্ববর্তী জঙ্গলপুর গ্রামের মো. মিলনের মেয়ে।

স্কুল ছাত্রীর চাচা মোঃ ইয়াছিন জানান, রোববার দুপুরে স্কুল থেকে আসার পথে বখাটে ইসমাইল তাকে বাই সাইকেল করে বাড়ি পৌঁছে দেওয়ার কথা বলে সাইকেলের পিছনে বসায়। আসার পথে বুদ্দির গ্রামের বাচ্চু মিয়ার পরিতাক্ত বাড়িতে ওই স্কুল ছাত্রীকে নিয়ে বখাটে ইসমাইল ধর্ষণ করে। ধর্ষণের পর স্কুল ছাত্রীকে অজ্ঞান অবস্থায় রেখে পালিয়ে যায় ওই বখাটে।

পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার চৌদ্দগ্রাম স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। কর্তব্যতে চিকিৎসক স্কুল ছাত্রীকে পরীক্ষা নিরিক্ষা করে নিশ্চিত করেন সে ধর্ষণের শিকার হয়েছেন।
ধর্ষণের ঘটনায় চৌদ্দগ্রাম থানায় একটি অভিযোগ করা হয়েছে। অভিযোগর পর চৌদ্দগ্রাম থানা পুলিশ অভিযুক্ত আসামী ইসমাইলকে গ্রেফতার করেন।

চৌদ্দগ্রাম থানার ওসি আবু ফয়সাল জানান, চিকিৎসকের রিপোর্টে ধর্ষণের প্রমাণ পাওয়ার পর রোববার রাতে অভিযুক্ত আসামীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। সোমবার কুমিল্লা আদালতের মাধ্যমে জেল খানায় প্রেরণ করা হয়েছে।

এদিকে ধর্ষণের শিকার স্কুল ছাত্রী বর্তমানে কুমিল্লা মেডিকেল কজলে হাসপাতালে চিকিৎসাধিন রয়েছেন।

error: দুঃখিত কুমিল্লার বার্তার কোন কনটেন্ট কপি করা যায় না।