কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাসে ছাত্রী লাঞ্ছনার অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক ● কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে (কুবি) চলন্ত বাসে এক ছাত্রী লাঞ্ছিত হয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। গত বৃহস্পতিবার বিকেল ৫টার দিকে ক্যাম্পাস থেকে শহর অভিমুখী বাসে এই ঘটনা ঘটে।

আজ রোববার বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. কাজী মোহাম্মদ কামাল উদ্দিনের কাছে লিখিত অভিযোগ করেছেন ওই ছাত্রী। এতে তিনি ওই ঘটনায় জড়িত ছাত্রদের বিচার চেয়েছেন।

লিখিত ওই অভিযোগ থেকে জানা যায়, বৃহস্পতিবার বিকেল ৫টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাড়া করা বিআরটিসির বাসে (বাস নম্বর ৬) উঠেন সপ্তম ব্যাচের ওই ছাত্রী। এ সময় ইচ্ছাকৃতভাবে তাঁর গায়ে ধাক্কা দেয় ফিন্যান্স অ্যান্ড ব্যাংকিং বিভাগের নবম ব্যাচের ছাত্র জয় দেব, অনন্ত, জুয়েল, সাদ্দাম হোসেন, সালমান ফারসীসহ আরো  কয়েকজন। প্রতিবাদ করায় ওই ছাত্রীর উদ্দেশে তাঁদের একজন বলেন, ‘এভাবে পাবলিক বাসে চড়লে ধাক্কা খেতে হবে। যদি না পারেন, তাহলে বাপের টাকায় প্রাইভেটকার কিনে চড়েন। অ্যাটিচিউড বড় করেন, ম্যানার শিখেন। আপনি কি বিশ্বসুন্দরী নাকি যে, আপনাকে ইচ্ছে করে ধাক্কা দেব।’

অভিযোগে বলা হয়, শহরে যাওয়া পর্যন্ত পুরো পথে ওই ছাত্রীকে গালিগালাজ ও অশ্লীল বাক্য প্রয়োগ, অশ্লীল গান ও অঙ্গভঙ্গি করেন ওই ছাত্ররা। ঘটনাটি নিয়ে ফেসবুকেও  ওই ছাত্রীর উদ্দেশে বিরূপ মন্তব্য করেন তাঁরা। তাঁরা ওই ছাত্রীকে মুঠোফোনেও বিভিন্ন পরিচয়ে হেনস্থা করেন।

অভিযোগে উল্লেখ করা হয়, কনিষ্ঠ (জুনিয়র) ছাত্রদের মাধ্যমে সবার সামনে লাঞ্ছিত হওয়া ওই ছাত্রী মানসিকভাবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছেন। তিনি  নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে অভিযোগ থাকা ছাত্রদের একজন জয় দেব বলেন, ‘আমরা আপুকে চিনতে পারি নাই। আমরা বিষয়টির জন্য লজ্জিত। আমরা আপুর কাছে ক্ষমা চেয়েছি।’

এ বিষয়ে প্রক্টর ড. কাজী মোহাম্মদ কামাল উদ্দিন বলেন, ‘ছাত্রীর অভিযোগ পেয়েছি। আমরা কালই (সোমবার) প্রক্টরিয়াল বডির সভা করে বিষয়টি নিয়ে কথা বলব।’