কুমিল্লা নগরীতে ১৯১টি স্থানে কোরবানি হবে ৯ হাজার গরু

নিজস্ব প্রতিবেদক ● কুমিল্লা নগরীতে আসন্ন ঈদ-উল- আযহার দিন কোরবানি করা পশুর বর্জ্য ওই দিন রাতের মধ্যে অপসারণ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশন। নগরীর ২৭টি ওয়ার্ডের ১৯১টি স্থানে ৯ হাজার গরু কোরবানি করা হবে।

ইতোমধ্যে ১২হাজার ব্যাগ বিতরণ করা হয়েছে। নগরীতে পরিচ্ছন্ন রাখতে সকলের সহযোগিতা চেয়েছে সিটি কর্পোরেশন কর্তৃপক্ষ।

সিটি কর্পোরেশন সূত্র জানায়, রাস্তার পাশে কোরবানি না করে, বর্জ্য ড্রেনসহ বিভিন্ন স্থানে ফেলে পরিবেশ দূষিত দূষিত না করার বিষয়ে বিভিন্ন পর্যায়ে সভা ও লিফলেট বিতরণের মাধ্যমে সচেতন করা হচ্ছে।  ২৭টি ওয়ার্ডের ১৯১টি স্থানে ৯হাজার গরু কোরবানি করা হবে। কোরবানিদাতাদের মধ্যে কাউন্সিলরদের মাধ্যমে ১২হাজার ব্যাগ বিতরণ করা হয়েছে। ঈদের দিন বিকাল ২টা থেকে রাতের মধ্যে সিটি কর্পোরেশনের ২৮টি গাড়ি দিয়ে বর্জ্যগুলো তুলে নিবে। এছাড়া জবাইয়ের স্থানে ব্লিচিং পাউডার দেয়া হবে। ২৫৪জন কর্মকর্তা-কর্মচারী এ কাজ তদারকি করবেন।  সিটি কর্পোরেশনের এই উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে নাগরিকরা বলেন,সময় মতো বর্জ্য অপসারণ করা হলে নগরী পরিচ্ছন্ন থাকবে।

সিনিয়র সাংবাদিক খায়রুল আহসান মানিক বলেন, কুমিল্লা নগরীতে আসন্ন ঈদ-উল- আযহার সময় নগরী পরিচ্ছন্ন রাখতে হবে। এজন্য সিটি কর্পোরেশনের সাথে নগরবাসীকেও এগিয়ে আসতে হবে।

১০ ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মঞ্জুর কাদের মনি জানান, সিটি কর্পোরেশনের পাশাপাশি তিনি নিজ উদ্যোগে অধিক ব্যাগ,পরিবহন ও শ্রমিকের ব্যবস্থা করেছেন,যাতে দ্রুত বর্জ্য অপসারণ করা যায়।

কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা অনুপম বড়ুয়া বলেন, কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশনকে পরিচ্ছন্ন রাখতে বিভিন্ন পর্যায়ে সচেতনতামূলক সভা করা হয়েছে। সবাই যেন নির্দিষ্ট স্থানে কোরবানি দেয় সেই আহবান জানাচ্ছি। সবার সহযোগিতা নিয়ে ঈদের রাতের মধ্যে বর্জ্য অপসারণ করা হবে।

error: দুঃখিত কুমিল্লার বার্তার কোন কনটেন্ট কপি করা যায় না।