কুমিল্লায় বেড়েছে পেঁয়াজ ও কাঁচা মরিচের দাম

নিজস্ব প্রতিবেদক ● কুমিল্লার প্রধান কাচাঁবাজারে সবচে বেশি বেড়েছে পেঁয়াজ ও কাঁচা মরিচের দাম। চাল, ভোজ্যতেল, মাছ ও শাক-সবজির দরেও রয়েছে ঊর্ধ্বগতি। তবে স্থিতিশীল আছে সব ধরনের মাংসের দাম।

শুক্রবার শহরের চকবাজার, রাজগঞ্জ ও নিউমার্কেট বাজারে ঘুরে ক্রেতা-বিক্রেতাদের সঙ্গে কথা বলে নিত্যপণ্যের এ চিত্র পাওয়া গেছে।

সরেজমিনে দেখা যায়, শহরের বিভিন্ন বাজারে সবজিসহ অন্যান্য পণ্যের দামে ভিন্নতা রয়েছে। চকবাজারে সবজির দাম অন্যান্য বাজারের তুলনায় কম। রাজগঞ্জ বাজারে চকবাজারের তুলনায় একটু বেশি ও নিউমার্কেটে দুই বাজারের তুলনায় বেশি।

এসব বাজারে গত ২ সপ্তাহে পাইকারিতে ভারতীয় পেঁয়াজ কেজি ১৮ টাকা, যা খুচরায় বিক্রি হচ্ছে ২৪ টাকা দরে। কিন্তু এখন পাইকারিতে দাম বেড়েছে ৪২ টাকা।

নিউমার্কেটে পেঁয়াজের খুচরা কেজি ৫০ টাকা, চকবাজারে ৪৫ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। নিউমার্কেটের ব্যবসায়ী দীপক শাহ বলেন, কোরবানি ঈদে পেঁয়াজের দাম দ্বিগুণ হয়ে যেতে পারে।

এর কারণ ব্যাখ্যায় তিনি বলেন, এমনিতেই দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ায় পেঁয়াজের দাম বেড়ে যায়। তাছাড়া এখন ভারত থেকে পেঁয়াজের আমদানি কম হচ্ছে। আবার অনেক ক্ষেত্রে এলেও অসাধু ব্যবসায়ীরা পেঁয়াজ মজুদ রেখে দেয়। এতে পেঁয়াজের দাম বেড়ে যায়। প্রতি কোরবানির ঈদেই এ ধরনের পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়।

এদিকে কুমিল্লার বাজারে রসুনের দাম কমেছে। ফলে বিপাকে পড়েছে অনেক অসাধু ব্যবসায়ী। তবে বেড়ে গেছে কাঁচা মরিচের দাম। প্রতিকেজি কাঁচামরিচ ১৪০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। যা খুচরায় ১৬০ টাকায় কিনতে হচ্ছে ক্রেতাদের।

সবজির মধ্যে টমেটোর  দাম গত ২ সপ্তাহ ধরে একই রয়েছে। ১১৫ টাকায় পাইকারি বাজারে ভারতীয় টমেটো বিক্রি হলেও খুচরায় চলছে ১২০ টাকায়।

চকবাজারের সওদা করতে আসা আসলাম মিয়া জানান, চকবাজারে সবজির দাম অন্যান্য বাজারের চেয়ে কম মূল্যে পাওয়া যায়। তবে কয়েকদিনের মধ্যে কিছু কিছু নিত্যপণ্যে দাম বেড়েছে।