কুমিল্লায় জমজমাট ইফতার বাজার

নিজস্ব প্রতিবেদক ● রমজানের দ্বিতীয় দিনেই কুমিল্লার ইফতার বাজার গুলোতে বাহারী ইফতারের আয়োজন জমে উঠেছে। কুমিল্লা নগরী ও আশপাশের বিভিন্ন এলাকার রেস্টুরেন্ট, ছোট-বড় হোটেল, খোলা জায়গা, ফুটপাত, বাজার সবখানেই হরেকরকমের ইফতারের পসারা সাজিয়ে বসেছে দোকানিরা।

সোমবার দুপুর থেকেই ইফতার কেনার জন্য দোকানে রোজাদের ভিড় বাড়তে থাকে। ইফতার সামগ্রী কিনতে এসে দাম কিছুটা বেশী দেখে ক্ষুব্ধ হলেও পছন্দের আইটেম কিইেন বাড়ি ফিরছেন সবাই।

নগরীর কান্দিরপাড়, চকবাজার, কুমিল্লা ক্যান্টনমেন্ট এলাকার কয়েকটি রেস্তোরা ও ইফতার বাজার ঘুড়ে দেখা যায় বোম্বের জিলাপি, ইরানী স্বাধের ঘিয়ে ভাজা জিলাপি, পেঁয়াজু, বেগুনি, চপ, ছোলা, মুড়ি, চিড়া ভাজা, খাসির কাবাব, গরুর কাবাব, মুরগির কাবাব, ডিম চপ, কাচ্চি বিরিয়ানী, চিকেন বিরিয়ানী, হালিমসহ নানা আইটেমের ইফতারি সাজিয়ে বসেছে দোকানিরা।

এখানকার বাজার গুলোতে পুরান ঢাকার মত বড় ও মোটা প্যাচের বড় বড় শাহী জিলাপি দেখা গেছে। জাম্বু সাইজের এসব শাহী জিলাপির এক একটির ওজন আধা কেজি থেকে ২ কেজি পর্যন্ত। বড় বড় প্যাঁচানো জিলাপি বেশ সুন্দর করেই সাজিয়ে রেখেছেন বিক্রেতারা।

প্রতি কেজির দাম ১৫০-২০০টাকা টাকা ও চিকন চিকন ইরানী জিলাপি বিক্রি হচ্ছে ২৫০-৩০০ টাকায়। অন্যান্য ইফতার সামগ্রীর পাশাপাশি সবচেয়ে বেশি চাহিদা শাহী জিলাপির।এছাড়া পেঁয়াজু ৩-৫টাকা, বেগুনি ৩-৫ টাকা, আলুর চপ ৩-৫ টাকা, ছোলা ১২০-১৫০টাকা কেজি, খাসির কাবাব ৫০-৮০ টাকা. গরুর সিক কাবাব ৮০-১০০ টাকা, মুরগির কাবাব ৮০-১০০ টাকা, ডিম চপ১০-১৫ টাকা, কাচ্চি বিরিয়ানী ১৫০-১৮০ টাকা, চিকেন বিরিয়ানী ১৫০-২০০টাকা কেজি, হালিম ২৫০-৩০০ টাকা কেজি।

এছাড়া, রমজান উপলক্ষে বাজারে ধনিয়াপাতা, কাঁচামরিচ, বেগুন, লেবু ,শসাও বেশ বিক্রি হচ্ছে ।