কুমিল্লায় চিকিৎসকের অবহেলায় শিশুর মৃত্যু, তদন্ত কমিটি

নিজস্ব প্রতিবেদক ● কুমিল্লায় একটি প্রাইভেট হাসপাতালে চিকিৎসকের অবহেলায় ফ্রান্স প্রবাসী এক আওয়ামী লীগ নেতার শিশু পুত্রের মৃত্যুর ঘটনা তদন্তে ৪ সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়েছে।

সোমবার দুপুরে কুমিল্লা সিভিল সার্জনের নির্দেশে ডেপুটি সিভিল সার্জনকে প্রধান করে এ তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। ফ্রান্স প্রবাসী প্রিতম আলম অন্তুর মৃত্যুর ঘটনায় চিকিৎসক এবং হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের অবহেলা ছিল কিনা তা তদন্ত করে আগামী ১৫ দিনের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।

গত শুক্রবার কুমিল্লা নগরীর একটি প্রাইভেট হাসপাতালে চিকিৎসকের অবহেলায় প্রিতম নামে ওই শিশুর মৃত্যু হয়। প্রিতম জেলার সদর দক্ষিণ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ও প্যারিস আওয়ামী লীগের যুগ্ম- সম্পাদক অধ্যাপক অপু আলমের ছেলে। তাদের গ্রামের বাড়ি জেলার সদর দক্ষিণ উপজেলার বাগমারা এলাকার মনোহরপুর গ্রামে।

হাসপাতাল সূত্র ও শিশুর পরিবারের অভিযোগে জানা যায়, শুক্রবার সকালে জ্বর ও বমি নিয়ে প্রিতমকে (৬) কুমিল্লা নগরীর মিডল্যান্ড হাসপাতালের চিকিৎসক ও কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের শিশু বিভাগের প্রধান ডা. আজিজুল হোসেনের অধীনে ভর্তি করা হয়।

ওই চিকিৎসকের পরামর্শে বেলা ১১টার দিকে প্রিতমের প্যাথলজিক্যাল পরীক্ষা করা হয়। কিন্তু দুপুরে ওই চিকিৎসক বাসায় চলে যান। সন্ধ্যায় হাসপাতালে ফিরে ওই চিকিৎসক এসব পরীক্ষার রিপোর্ট দেখেন।

পরে তিনি প্রিতমের শরীরে পটাশিয়ামের শূন্যতা উল্লেখ করে দ্রুত তাকে ঢাকায় নেয়ার পরামর্শ দেন। এর আগে পরীক্ষা রিপোর্ট যথাসময়ে না দেয়ার কারণে সঠিক চিকিৎসা সেবা ছাড়াই প্রায় ৭ ঘণ্টা হাসপাতালের বেডে রাখা হয় ওই শিশুকে।

ওই রাতে প্রিতমকে নিয়ে অ্যাম্বুলেন্সযোগে ঢাকার স্কয়ার হাসপাতালে নেয়ার পর রাত সোয়া ১১টায় সেখানকার ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

প্রিতমের বাবা অধ্যাপক অপু আলম বলেন, সময় মতো রিপোর্ট এবং ডাক্তার দেখাতে পারলে আমার ছেলেকে বাঁচানো যেত।

কুমিল্লা সিভিল সার্জন ডা. মো. মুজিবুর রহমান জানান, ওই শিশুর মৃত্যুর ঘটনায় চিকিৎসক ও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের অবহেলা ছিল কিনা তা অনুসন্ধান করে দেখতে ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. কামাল উদ্দিন আহাম্মদকে প্রধান ও মেডিকেল অফিসার ডা. শাহাদাৎ হোসেনকে সদস্য সচিব করে ৪ সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়েছে।

কমিটির অপর দুই সদস্য হলেন- শিশু বিশেষজ্ঞ ডা. ত্রিবিদ কুমার রায় এবং ডা.খোকন কান্তি মজুমদার। আগামী ১৫ দিনের মধ্যে কমিটিকে এ বিষয়ে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।

error: দুঃখিত কুমিল্লার বার্তার কোন কনটেন্ট কপি করা যায় না।