কুমিল্লায় শ্রমিক-মালিক-পুলিশের সংঘর্ষে আহত ৫০

নিজস্ব প্রতিবেদক ● বেতন-ভাতার দাবিতে আন্দোলনে নেমেছেন কুমিল্লা ইপিজেডে ওয়েসিস টেক্সটাইল নামে একটি কারখানার শ্রমিকরা। এ সময় শ্রমিকদের সঙ্গে মালিকপক্ষ ও পুলিশের সংঘর্ষের ঘটনায় অন্তত ৫০ শ্রমিক আহত হওয়ারও খবর পাওয়া গেছে। বুধবার বিকেল ৫ টা থেকে শুরু হওয়া এ বিক্ষোভ সন্ধ্যা সোয়া ৬ টা পর্যন্ত চলে। এ সময় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে বেশ কয়েক রাউন্ড ফাকাঁ রাবার বুলেট ছুড়েছে পুলিশ।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, ইপিজেডের ওয়েসিস টেক্সটাইল কোম্পানিতে প্রায় ১ হাজার ২০০ শ্রমিক কর্মরত রয়েছেন। এর মধ্যে বেশিরভাগ শ্রমিকের ৩ মাসের আবার কারও এক মাসের বেতন-ভাতা বকেয়া পড়েছে। বেশ কয়েকবার দাবি জানালেও তা পরিশোধ করেনি কর্তৃপক্ষ।

এক পর্যায়ে বকেয়া এ বেতন-ভাতার দাবিতে বুধবার বিকেলে বিক্ষোভ শুরু করেন শ্রমিকরা। এ নিয়ে প্রথমে মালিকপক্ষের লোকজনের সঙ্গে তাদের বাকবিতণ্ডা ও পরে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া হয়।

খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ধাওয়া দিলে শুরু হয় সংঘর্ষ। এ সময় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে বেশ কয়েক রাউন্ড রাবার বুলেট ছুড়ে পুলিশ।

কুমিল্লা ইপিজেড ফাঁড়ির ইনচার্জ আজিজুর রহমান জানান, উত্তেজিত পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ ফাঁকা রাবার বুলেট ছুড়েছে। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে।

শ্রমিকদের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ায় আহত বেশ কয়েকজনকে স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

error: দুঃখিত কুমিল্লার বার্তার কোন কনটেন্ট কপি করা যায় না।