কাল কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের ১১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক ● লাল পাহাড়ের সুবেজে ঘেরা দৃষ্টিনন্দন প্রাকৃতিক পরিবেশে অবস্থিত কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়। দেশের হাজার হাজার শিক্ষার্থীর উচ্চ শিক্ষা অর্জনের কাঙ্খিত প্রতিষ্ঠান। ইতিহাস বিখ্যাত শালবন বিহার ও ময়নামতি জাদুঘরের সন্নিকটে প্রতিষ্ঠিত কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের ১১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী ২৮ মে রবিবার।

২০০৬ সালের ২৮ মে প্রতিষ্ঠিত হওয়ার পর হাঁটি হাঁটি পা পা করে বিশ্ববিদ্যালয়টি পা দিল ১২তম বছরে। তাই দিনটি বিশ্ববিদ্যালয় পরিবারের সবার জন্য আনন্দ উল্লাসের, ভালোলাগা-ভালোবাসার। বিশ্ববিদ্যালয় পরিবারের সব সদস্যের জন্য দিনটি কাঙ্খিত হলেও এ বছর যথা সময়ে দিবসটি পালিত হচ্ছে না।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা যায়, প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালনের কোনো প্রস্তুতিই হাতে নেয়নি প্রশাসন। অন্যান্য বছর প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে বিভিন্ন আয়োজন থাকলেও এ বছর গ্রীষ্মকালীন অবকাশ, পবিত্র রমজান ও ঈদ-উল-ফিতরের ছুটির কারণে কোনো আনুষ্ঠানিকতা রাখা হয়নি। ছুটি শেষে বিশ্ববিদ্যালয় খোলার পর দিবসটি পালন করা হবে।

জানতে চাওয়া হলে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার মো. মজিবুর রহমান মজুমদার বলেন, “এ বছর বিশ্ববিদ্যালয় দিবসটি পালন করা হচ্ছে না। ” বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. আলী আশরাফ বলেন, “এ বছর বিশ্ববিদ্যালয় দিবসের দিনই রোজা শুরু হচ্ছে। এ ছাড়া গ্রীষ্মকালীন অবকাশ, পবিত্র রমজান ও ঈদ-উল-ফিতরের ছুটি শুরু হয়ে গেছে। এ সময় শিক্ষক-শিক্ষার্থীর  উপস্থিতিও থাকার সম্ভাবনা কম। তাই ঈদের ছুটি শেষে আড়ম্বরপূর্ণভাবে দিবসটি পালন করার চিন্তা রয়েছে। “