ঈদের পোশাক পছন্দ না হওয়ায় স্ত্রীকে হত্যা

নিজস্ব প্রতিবেদক ● চৌদ্দগ্রামে ফারজানা আক্তার স্বপ্না নামের এক গৃহবধূকে তারই পাষণ্ড স্বামী মনির হোসেন শ্বাসরোধ করে হত্যা করেছে। সোমবার দুপুরে পুলিশ লাশটি উদ্ধার শেষে ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেছে।

নিহত স্বপ্না উপজেলার শুভপুর ইউনিয়নের সাতবাড়িয়া গ্রামের আবুল কাশেমের মেয়ে।

নিহত স্বপ্নার মা আয়েশা বেগম অভিযোগ করেন, গত জানুয়ারি মাসে সদর দক্ষিণ উপজেলার বড়তুলা পশ্চিম পাড়ার মো. শামছুল হকের পুত্র মনির হোসেনের (২৫) সাথে চার লাখ টাকা দেনমোহরে স্বপ্নার (১৮) বিয়ে হয়।

বিয়ের সময় যৌতুক হিসেবে নগদ এক লাখ টাকা দেয়া হয়। এরপরও প্রতিনিয়ত সময় মনির হোসেন স্বপ্নার সাথে খারাপ ব্যবহার করতো।

গত ২০ দিন আগে স্বপ্না বেড়াতে বাবার বাড়িতে আসে। রবিবার সন্ধ্যায় মনির এসে স্বপ্নাকে নিয়ে যাওয়ার কথা ছিল।

মনির শ্বশুর বাড়িতে এসে ঈদ উপলক্ষে শাশুড়ির কিনে রাখা নতুন জামা-কাপড় পছন্দ না হওয়ায় স্বপ্নার সাথে ঝগড়ায় লিপ্ত হয়। এক পর্যায়ে মনির স্বপ্নাকে গলাটিপে হত্যা করে পালিয়ে যায়।

খবর পেয়ে চৌদ্দগ্রাম থানার এসআই শামীম সরকারের নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল লাশটি উদ্ধার করে।

এ বিষয়ে চৌদ্দগ্রাম থানার এসআই কমল কৃষ্ণ সুত্রধর ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, লাশটি উদ্ধার শেষে ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।