আমতলীর চাঁদাবাজ কালু মেম্বার গ্রেফতার

নিজস্ব প্রতিবেদক ● কুমিল্লা সদর উপজেলার আলেখারচর সংলগ্ন আমতলী এলাকার ত্রাস একাধিক মামলার আসামী খোরশেদ আলম কালুকে কোতয়ালী পুলিশ শুক্রবার রাতে গ্রেফতার করেছে। তার বিরুদ্ধে চাঁদাবাজিসহ কমপক্ষে ৮ টি মামলা রয়েছে।

স্থানীয় নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক সুত্র জানায়, জেলার সদর উপজেলার দুর্গাপুর (উত্তর) ইউনিয়নের আমতলী এলাকার ত্রাস খোরশেদ আলম কালু’র অত্যাচারে এলাকার নিরিহ মানুষ দীর্ঘদিন ধরে নির্যাতিত হয়ে আসছে। অভিযোগ রয়েছে স্থানীয় আমতলী, নিশ্চিন্তপুর, আলেখারচর এলাকায় জায়গা-জমি ক্রয়-বিক্রি, দখল, ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের পাশে সড়ক ও জনপদ বিভাগের জায়গা জোর পূর্বক দখল, ডাকাতি ছাড়াও চাঁদাবাজির একাধিক অভিযোগ রয়েছে। সম্প্রতি ইউপি নির্বাচনে দূর্গাপুর উত্তর ইউনিয়ন থেকে মেম্বার পদে নির্বাচনে বিজয়ী হওয়ার পর সে আরো বেপরোয়া হয়ে উঠে। তার অত্যাচারে এলাকার নিরিহ মানুষ ভয়ে মুখ খুলতে সাহস পায় না। সম্প্রতি কালু মেম্বার মহাসড়কের পাশে আমতলী এলাকায় একটি জায়গা দখল ও চাঁদাবাজির ঘটনায় পাশ্ববর্তী দূর্গাপুর দক্ষিণ ইউনিয়নের চম্পকনগর (সাতরা) গ্রামের আখিঁ আক্তার বাদী হয়ে কোতয়ালী থানায় খোরশেদ আলম কালুর বিরুদ্ধে জায়গা দখল ও চাঁদাবাজির মামলা করেন। শুক্রবার রাতে কোতয়ালী পুলিশ তাকে সেই মামলায় গ্রেফতার করে বিজ্ঞ আদালতে সোপর্দ করে। উল্লেখ্য খোরশেদ আলম কালু’র বিরুদ্ধে জায়গা দখল, চাঁদাবাজি, ডাকাতি ছাড়াও মাদক মামলা রয়েছে। বিগত সময়ে সে এসব মামলায় একাধিকবার গ্রেফতার হয়। তার গ্রেফতারের সংবাদে এলাকার নিরিহ মানুষের মনে স্বস্তি আসে। নাম প্রকাশ না করার শর্তে স্থানীয় একাধিক ব্যক্তি জানান, তার অত্যাচারে এখানকার নিরিহ মানুষ অতীষ্ট ছিল।

error: দুঃখিত কুমিল্লার বার্তার কোন কনটেন্ট কপি করা যায় না।