বিপিএল জুয়ায় খুন; কুমিল্লায় যুবক গ্রেফতার

কুমিল্লার বার্তা ডেস্ক ● বিপিএল নিয়ে বসা জুয়ার আসরে বাধা দেয়ায় রাজধানীর মধ্য বাড্ডায় নাসিম আহমেদ ইমাদ উদ্দিন খুনের ঘটনায় প্রধান আসামিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার মধ্যরাত থেকে বুধবার ভোর পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে কুমিল্লা সদর থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। বিপিএল নিয়ে বসা জুয়ার আসরে বাধা দেয়ায় গত ৬ নভেম্বর সকালে খুন হন বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র নাসিম। এ ঘটনায় নাসিমের বাবা আলী আহমেদ সাইফুদ্দীন বাদী হয়ে রাতেই বাড্ডা থানায় মামলা করেন।

মামলায় আবদুর রশিদ, রমজান ও আসিফ নামে স্থানীয় তিন যুবক ছাড়াও অজ্ঞাতনামা কয়েকজনকে আসামি করা হয়।

গুলশান বিভাগের সহকারী পুলিশ কমিশনার (বাড্ডা জোন) আশরাফুল করিম এ তথ্য জানিয়েছেন। তিনি বলেন, ওই ঘটনায় তিনিই (আসামি আসিফ শিকদার) প্রধান, সে একাই জড়িত।

গত ৬ নভেম্বর (সোমবার) সকাল ৯টার দিকে রাজধানীর বাড্ডা থানাধীন পোস্ট অফিসের গলির ৩৭৫ নং দাগের ৪ নং নিজ বাসার সামনে নাসিমের গলায় ও কোমড়ে ৩টি স্থানে ছুরিকাঘাত করা হয়। পরে স্থানীয়দের সহযোগিতায় তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নেয়া হলে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

নিহতের ছোট ভাই ইম্পেরিয়াল কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্র নাবিল আহমেদ জানান, বিপিএল খেলা নিয়ে বোর্ড (ক্যারাম বোর্ড) ঘরে রমরমা জুয়ার আসর চলছিল। সেখানে সন্ধ্যার পর ক্যারাম খেলতেন ভাই নাসিম। গত রাতে নাসিম ক্যারাম খেলতে গিয়ে দেখেন বিপিএলের ম্যাচ নিয়ে মোটা অঙ্কের জুয়া চলছিল।

এতে বাধা দেন তিনি। বাধার মুখে রমজান আলী, আসিফ, রশিদ, শহীদুল ও রফিক নামে স্থানীয়দের সঙ্গে বাগবিতণ্ডা হয় নাসিমের। ঘটনা হাতাহাতি পর্যন্তও গড়ায়।

তবে কয়েকটি সুত্র জানায়, আসিফের দাবি গত ৫ নভেম্বর রাতে মদ্যপ অবস্থায় ছিলেন তিনি। এ সময় তাকে নাসিম মারধর করে। এর প্রতিশোধ নিতে ৬ নভেম্বর সকালে বাড্ডার পোস্ট অফিস গলিতে নাসিমকে গলায় ও কোমরে ছুরিকাঘাত করে আসিফ।

নাসিম খুনের ঘটনায় বাড্ডা থানায় একটি মামলা করেছেন তার বাবা আলী আহমেদ সাইফুদ্দীন।

ওই মামলায় দাবি করা হয়েছে, আসিফ ছাড়াও আবদুর রশিদ ও রমজানসহ অজ্ঞাতনামা কয়েকজন মিলে নাসিমকে হত্যা করেছে।