কুমিল্লার প্রবাসীরা যেভাবে সংগ্রহ করবেন স্মার্ট কার্ড

কুমিল্লার বার্তা ডেস্ক ● ১৩ নভেম্বর সোমবার থেকে কুমিল্লার বাসিন্দাদের মাঝে ডিজিটাল ভোটার আইডি কার্ড (স্মার্ট জাতীয় পরিচয়) বিতরণ কার্যক্রম শুরু করবে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। প্রথমে কুমিল্লা সিটি কপোরেশনের (কুসিক) সাতাশটি ওয়ার্ডের ২ লক্ষ ৭ হাজার ৫৫৬ জন ভোটারদের মাঝে স্মার্ট কার্ড বিতরণ করা হবে। সোমবার কুমিল্লা টাউনহল সম্মেলন কক্ষে এর বিতরণ কাজ উদ্বোধনের প্রস্তুতি নিয়েছে বলে জানান কুমিল্লা জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মোঃ খোরশেদ আলম।

কুমিল্লা জেলা নির্বাচন কমিশনার সূত্র জানায়, ১৫ নভেম্বর থেকে কুসিকের ২৭টি ওয়ার্ডের সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও উচ্চমাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ক্যাম্প করে ২ লক্ষ ৭ হাজার ৫৫৬ জন ভোটারদের হাতে স্মার্ট কার্ড তুলে দেওয়া হবে।

২৭টি ওয়ার্ডের মধ্যে পুরুষ ভোটার হচ্ছে ১ লক্ষ ২ হাজার ৭৪৭ জন এবং মহিলা ভোটার হচ্ছে ১ লক্ষ ৫ হাজার ১১৯ জন। কার্ড বিতরণে সার্বক্ষণিক দায়িত্ব পালন করবেন কুসিক নির্বাচনের কমিশনারের টেকনিক্যাল কর্মকর্তাগণ। বিতরণের কাজ শেষ হবে আগামী বছরের ১৫ মার্চ।

কমিশনার সূত্র আরো জানায়, কুসিকের দুই লক্ষাধিক ভোটারদের মাঝে স্মার্ট কার্ড বিতরণে একজন সংগীত শিল্পী, কলেজ অধ্যক্ষ, ডাক্তার, মুক্তিযোদ্ধা ও একজন প্রতিবন্ধীসহ ১১ জনের মাঝে পরিচয়পত্র বিতণের মাধ্যমে উদ্বোধন ঘোষণা করা হবে।

১১ জন সদস্য হলেন, কুমিল্লা জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা সঞ্জয় কুমার ভৌমিক, কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ আমির আলী, কুমিল্লা মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আরফানুল হক রিফাত, কুমিল্লা জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার শফিউল আহমেদ বাবুল, বাংলাদেশের জনপ্রিয় সংগীত শিল্পী কুমিল্লার কৃতি সন্তান আসিফ আকবর, কুমিল্লা সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর সৈয়দা বিলকিস আরা বেগম, কুমিল্লা সদর উপজেলার চেয়ারম্যান আমিনুল ইসলাম টুটুল, সদর দক্ষিণ উপজেলা চেয়ারম্যান গোলাম সরোয়ার, ফয়জুন্নেচ্ছা সরকারি বালিকা উচ্চবিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা রোকসানা ফেরদৌস মজুমদার, ডা. তৃপ্তীশ চন্দ্র ঘোষ, মাতৃভান্ডারের মালিক অনির্বান সেন গুপ্ত ও প্রতিবন্ধী আবদুর রহমান।

এ ব্যাপারে কুমিল্লা জেলা নির্বাচন কমিশনার মোঃ খোরশেদ আলম বলেন, কুমিল্লা সিটি কপোরেশনের ২৭টি ওয়ার্ডের ২ লক্ষ ৭ হাজার ৫৫৬ জন ভোটারদের মাঝে স্মার্ট কার্ড (জাতীয় পরিচয় পত্র) বিতরণ করবো।

তিনি বলেন, আমাদের সব ধরণের প্রস্তুতি শেষ হয়েছে। ১৫ নভেম্বর শুরু হয়ে আগামী বছরের ১৫ মার্চ পরিচয়পত্র বিরণের কাজ সম্পূর্ণ হবে। একটি কার্ডের মেয়াদকাল থাকবে সর্বোচ্চ ১৫ বছর।

জাতীয় পরিচয়পত্র উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে থাকবেন, বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশনের নির্বাচন কমিশনার মোঃ রফিকুল ইসলাম। এতে বিশেষ অতিথি থাকবেন, বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ, কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মনিরুল হক সাক্কু, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবু তাহের, কুমিল্লা জেলা প্রশাসক মোঃ জাহাংগীর আলম এবং জেলা পুলিশ সুপার মোঃ শাহ আবিদ হোসেন। এতে সভাপতিত্ব করবেন, আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা কুমিল্লা অঞ্চল এস এম এজহারুল হক।

এদিকে প্রবাসীরা নিজে উপস্থিত হয়ে স্মার্ট কার্ড সংগ্রহ করতে হবে বলে নির্বাচন কমিশনার সূত্রে জানা গেছে। কুমিল্লা আদর্শ সদর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মোঃ কামরুল হাসান জানান, যে দিন যে ওয়ার্ডের যে স্থানে স্মার্ট কার্ড প্রদান করা হবে সেখানে উপস্থিত হয়ে প্রত্যেকে নিজ নিজ স্মার্ট কার্ড সংগ্রহ করবেন। স্মার্ট কার্ড সংগ্রহ করার সময় ফিঙ্গারপ্রিন্ট ও চোখের আইরিশ নেওয়া হবে তাই একজনের কার্ড অন্যজন নেওয়ার কোন সুযোগ নেই। তবে প্রবাসীরা অন্য যে কোন সময় নিজ নিজ উপজেলা নির্বাচন অফিসে গিয়ে স্মার্ট কার্ড সংগ্রহ করতে পারবেন।