কুমিল্লার যুবক বিপুল পরিমান ইয়াবাসহ সৌদিতে আটক

কুমিল্লার বার্তা ডেস্ক ● কুমিল্লা আদর্শ সদর উপজলার ২নং দুর্গাপুর ইউনিয়নস্থ গুনাইনন্দী গ্রামের সৌদি আরব প্রবাসী যুবক নাছির হোসেন (৩২) কে আটক করছে সৌদি পুলিশ। দীর্ঘ তিন সপ্তাহ নিখোঁজ থাকার পর পরশু দাম্মামের একটি আদালত তার ২বছরের সাজার রায় ঘোষনা করলে বিষয়টি নজরে আসে। দেশের গন্ডি পেরিয়ে সৌদি আরবের প্রবাসী যুবকদের বিপথগামী করছে ইয়াবা নামক মরন নেশা।

সম্প্রীতি ইয়াবা ব্যবসায় জড়িয়ে পরেছেন কুমিল্লার অনেক প্রবাসী যুবক। আটক হয়ে সে দেশে জেল খাটছেন অন্তত ৪৮জনেরও বেশী গত ১ বছরে।

বহনে সুবিধা আকারে ছোট স্কেনিং এ ধরা পরে না আর লাভ ও দশগুন তাই লোভের বশবর্তী হয়ে সর্বস্ব হারাচ্ছেন যেমন তেমনি দেশের ভাবমূর্তি ও নষ্ট করছেন বিদেশের মাটিতে।

সৌদি আরব দাম্মাম এলাকার প্রবাসী কয়েকজন ব্যবসায়ী এবং সৌদি আরবে নাসিরের পরিচিত কুমিল্লার কয়েকজন জানায়, নাছির বেশ কিছুদিন ধরে ইয়াবা ব্যবসা করছিলো। দাম্মাম এবং জেদ্দায় তাকে প্রবাসী আন্ডারওয়ার্ল্ড ইয়াবা ব্যবসায়ীর ইয়াবা ডিলার হিসেবে জানেন।

সুত্র আরো জানায় সৌদি আরবের ইয়াবা ডিলার বরুড়ার মোতালেব ও সুমনের সহযোগী নাসির হোসেন মুলত দেশ থেকে ওমরাহ্‌ করতে যাওয়া এবং নতুন যাত্রীদের মাধ্যমে ইয়াবা চালান সৌদি আরবে আনত। জেদ্দা এবং দাম্মাম এলাকায় ছোট ছোট ব্যবসায়ীদের কাছে পাইকারি ইয়াবা বিক্রি করতো নাসির।

গত মাসে দাম্মামের নিজ বাসা থেকে সৌদি গোয়েন্দা বাহিনীর সদস্যরা তাকে আটক করে। এসময় তার রুমে থেকে ১৮০০পিছ ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করে সৌদি আরব পুলিশ এবং গ্রেপ্তার করে অঞ্জাত স্থানে নিয়ে যায় । এরপর থেকে নাসিরের বেশ কিছুদিন কোন খোজ পাওয়া যাচ্ছিলো না ।

ইয়াবা ব্যবসায় নাসিরের সাথে জড়িত কুমিল্লার আরো কয়েকজন প্রবাসী যারা তার সাথে থাকতো বেশিরভাগ সময় তারা নাসির আটক হওয়ার পরই গা ঢাকা দিয়েছে দাম্মাম এলাকা থেকে। পরিবারের লোকজন ও বেশ চিন্তিত হয়ে পরে তার সাথে যোগাযোগ না থাকায়। গত দুদিন আগে নাসিরের খুব কাছের একজন দাম্মাম থেকে নাসিরের ইয়াবা সহ আটক ও দুবছরের সাজা হয়েছে বলে কয়েকজন জানালে বিষয়টি সামনে আসে। খোজ নিয়ে নিশ্চিত হওয়ার পরই খবরটি ছরিয়ে পরে সকল প্রবাসীদের মাঝে।

প্রবাসীদের আরেকটি সুত্র জানায় নাছির গত দুবছর যাবত এ ব্যবসার সঙ্গে জড়িত। হটাৎ করেই নাছিরের চলাফেরায় পরিবর্তন দেখেন তারা।

দুহাতে টাকা খরচ করতেন, দামী গাড়ীও কিনেছেন কয়েকটা সেদেশে । চলাফেরা দেখে তারা আন্দাজ করতে পেরে তাকে সরে আসতে বলেন অবৈধ পথ থেকে নিকট বন্ধুরা ।

কিন্তু সে তাদের কথা শোনেন নি বলেই জানান তারা। সৌদিআরব দাম্মাম প্রবাসী কুমিল্লা বরুড়া উপজেলার হারুন নামের একজন বিষয়টি নিশ্চিত করে প্রতিবেদক ফোনে জানায় ” নাসিরের আমার পরিচিত এবং খুব ভালো বন্ধু ছিলো তাকে আগেই বলেছিলাম এসব ছেড়ে দিতে তাহলে আর এমন হতো না। নাসির বর্তমানে দাম্মামের একটি কারাগারে রয়েছে।

ঝামেলায় পরতে হয় এই ভয়ে দেখাও করতে পারছি না ” সৌদি আরব প্রবাসী নাসির কুমিল্লা আদর্শ সদর উপজেলার গুনাইনন্দি ২২ নং গেইট এলাকার মৃত আব্দুল মজিদের ছেলে এবং মোঃ আবুল খায়েরের ভাই বলে জানা গেছে ।