কুমিল্লায় থমথমে অবস্থা

কুমিল্লার বার্তা ডেস্ক ● বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার রায় ঘোষণার পর কুমিল্লা জেলা জুড়ে থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। জনমনে বিরাজ করছে আতঙ্ক। মহানগরের কান্দিরপাড়, রাজগঞ্জ ও টমছমব্রিজসহ বিভিন্ন এলাকায় দোকানপাট বন্ধ করে দিয়েছে ব্যবসায়ীরা। নগরীতে যান চলাচলও বন্ধ রয়েছে। যার ফলে উদ্বেগ ও উৎকণ্ঠায় রয়েছে নগরবাসী।

কান্দিরপাড়স্থ জেলা বিএনপির কার্যালয়সহ বিভিন্ন স্থানে বিপুল সংখ্যক পুলিশ অবস্থান করতে দেখা গেছে।

নগরীর বাসষ্ট্যান্ডগুলোতে যাত্রীর দেখা মিলছে না। জেলার বিভিন্ন স্থান থেকে শহরগামী মানুষের সংখ্যাও তেমনটা চোখে পড়েনি। নিত্যদিনের যানজটের শহর আজ সকাল থেকে যানজট মুক্ত রয়েছে। হাতেগোনা কিছু মানুষ এসব সড়ক দিয়ে ভয়ে-ভয়ে তিন চাকার রিকশা ও পায়ে হেঁটে চলাচল করছে। সকাল থেকে জেলা জুড়ে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী সর্বোচ্চ সতর্ক অবস্থানে ছিলেন। বিকেল ৪টা পর্যন্ত কুমিল্লার কোথায়ও কোনো প্রকার অপ্রতীকর ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি।

এদিকে সকাল থেকে নগরীর বিভিন্ন পয়েন্টে আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগ নেতা-কর্মীরা অবস্থান নিয়েছে। থেমে-থেমে নগরীতে খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে মিছিল করছে নেতাকর্মীরা। তবে বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের কোনো নেতাকার্মীর উপস্থিতি লক্ষ্য করা যায়নি। এরা মহাসড়কের বিভিন্ন স্থানে অবস্থান নিয়েছে বলে একটি সূত্র জানিয়েছে।

আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী সূত্র জানান, ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কুমিল্লা দাউদকান্দি থেকে ফেনী মহিপাল পর্যন্ত এবং জেলার গুরুত্বপূর্ণ স্থানে ৫ প্লাটুন বিজিবি মোতায়ন করা হয়েছে।

এদের সাথে রয়েছে ৫ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট। এছাড়াও পুরো জেলা জুড়ে পুলিশ, র‌্যাবসহ বিভিন্ন আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর ৫ শতাধিক সদস্য মাঠে রয়েছেন।

কুমিল্লা জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মো. মোস্তাক মিয়া জানান, কুমিল্লায় বিএনপি নেতাকর্মীরা শান্তিপূর্ণভাবে মিথ্যা ও সাজানো মামলার প্রতিবাদ এবং তীব্র আন্দোলন চালিয়ে যাবে।

কুমিল্লা জেলা পুলিশ সুপার মো. শাহ্ আবিদ হোসেন জানান, খালেদা জিয়ার রায় উপলক্ষে কুমিল্লায় যেন কোনো প্রকার বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি না করতে পারে সে বিষয়ে বিপুল পরিমাণ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা বৃহস্পতিবার সকাল থেকে সতর্ক অবস্থানে রয়েছে।