কুমিল্লায় শিশু ধর্ষণ; রাজবাড়ি থেকে ধর্ষক আটক

কুমিল্লার বার্তা ডেস্ক ● কুমিল্লা নগরীর শাসনগাছা আবাসিক এলাকার জনৈক নজরুল ইসলামের বিল্ডিংয়ের ২য় তলার খোলা ছাদে ৭ বছরের এক শিশু ধর্ষনের শিকার হয়। পরে শিশুটির অভিভাবক বাদী হয়ে কুমিল্লা কোতয়ালী মডেল থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগের ভিত্তিতে রাজবাড়ি জেলা থেকে রোববার ধর্ষককে আটক করেছে কোতয়ালী মডেল থানা পুলিশ।

জানা যায়, গত শুক্রবার ২ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যা ৭টায় সদর উপজেলার শাসনগাছা এলাকার মোসলেমের পুত্র মামুন (২৫) শিশুটিকে বড়ুই খাওয়ানোর লোভ দেখিয়ে ছাদে নিয়া জোর পূর্বক ধর্ষন করে। এরপর রক্তাক্ত মুমূর্ষু শিশুটিকে ফেলে রেখে গোপনে সেখান থেকে পালিয় যায়। শিশুটির ডাক ও চিৎকারে শুনে অভিভাবক এবং প্রতিবেশীরা এসে রক্তাক্ত অবস্থায় দেখতে পায়। ঘটনা শুনে এবং রক্তাক্ত অবস্থায় দ্রুত শিশুটিকে তারা কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করান। শিশুটির অভিভাবক তার মা বাদী হয়ে কুমিল্লা কোতয়ালী মডেল থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করলে এসআই মোঃ আল-মামুন ঘটনাস্থল ও হাসপাতালে গিয়ে আহত শিশুটির গুরুতর অবস্থায় দেখেন। এরপরই অভিযুক্ত ধর্ষক মামুনকে গ্রেফতারে বিভিন্ন এলাকায় তল্লাশী চালায় কোতয়ালী মডেল থানার একাধীক টিম।

গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রোববার আসামী মামুনকে ঢাকা রেঞ্জের রাজবাড়ি জেলার বালিয়াকান্দি এলাকার মামুনের মামার বাড়ি থেকে বালিকান্দি থানার অফিসার ও ফোর্সের সহযোগিতায় কৌশলে মামুনকে গ্রেফতার করে।

এ বিষয় কোতয়ালী মডেল থানা অফিসার ইনচার্জ আব্দুস মো.ছালাম মিয়া জানান, আসামী মামুন এলাকার বখাটে যুবক ও লম্পট হিসেবে পরিচিত । তার বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন-২০০০ (সংশোধনী ২০০৩)এর ৯ (১) ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। ধর্ষক মানুন কে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।