কুমিল্লায় পুলিশ-নৌ-ডাকাত বন্দুকযুদ্ধ, ৩ পুলিশ আহত

কুমিল্লার বার্তা ডেস্ক ● কুমিল্লার ডিবি পুলিশের সাথে নৌ- ডাকাতদের বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটেছে। এতে কুমিল্লার অতিরিক্ত পুলিশ সুপারসহ ৩ পুলিশ সদস্য আহত হয়েছে। এসময় পুলিশ এক নৌ- ডাকাতকে আটক করে এবং অস্ত্র ও গুলি উদ্ধার করে। সোমবার বিকালে জেলার দাউদকান্দি উপজেলার কৃষ্ণপুর এলাকায় গোমতী নদীতে এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে।

পুলিশ জানায়, সংঘবদ্ধ একটি ডাকাত দল দীর্ঘদিন ধরে গোমতী নদী এলাকায় ডাকাতি ও ছিনতাইসহ নানা অপরাধ সংঘটিত করে আসছিল। এমন তথ্যের ভিত্তিতে জেলা পুলিশ সুপার মো. শাহ আবিদ হোসেনের নির্দেশে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সাখাওয়াত হোসেনের নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল সোমবার বিকালে নদীর দাউদকান্দি উপজেলার কৃষ্ণপুর এলাকায় অভিযান চালায়।

এসময় ডাকাতরা পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি চালায়। এসময় পুলিশও ৪০ রাউন্ড শর্টগান ও ১৩ রাউন্ড পিস্তলের গুলি ছুঁড়ে। সংঘবদ্ধ ডাকাতদলের অনেকে পালিয়ে গেলেও পুলিশ শাওন (২০) নামের এক ডাকাতকে আটক করতে সক্ষম হয়।

এ ঘটনায় পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সাখাওয়াত হোসেন, ডিবি’র এসআই শাহ কামাল আকন্দ পিপিএম, এসআই সহিদুল ইসলাম আহত হন। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ১টি একনলা কাটা বন্দুক, ৯টি রাম-দা, ৬ রাউন্ড গুলি, ডাকাতির জন্য ব্যবহৃত ২টি নৌকাসহ দেশিয় অস্ত্র উদ্ধার করে।

রাত সোয়া ৮টায় এসআই শাহ কামাল আকন্দ পিপিএম জানান, পালিয়ে যাওয়া ডাকাতদের ধরতে ও অস্ত্র উদ্ধারে অভিযান চলছে।

তিনি আরও জানান, নৌ- ডাকাতরা দীর্ঘ দিন ধরে গোমতী নদীতে নৌযানবাহনে ডাকাতিসহ নদী কেন্দ্রিক নানা অপকর্ম চালিয়ে আসছিল। তাদের আটকে অভিযান অব্যাহত থাকবে বলেও তিনি জাানিয়েছেন।