‘বঙ্গবন্ধুর জন্ম না হলে বাংলাদেশ স্বাধীন হত না’

কুমিল্লার বার্তা ডেস্ক ● জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভার আয়োজন করেছে কুমিল্লা মহানগর আওয়ামীলীগ। বুধবার সন্ধ্যায় কুমিল্লা টাউনহল মিলনায়তনে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের দীর্ঘ সংগ্রামের ইতিহাস তুলে ধরেন মহানগর আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দরা। মুক্তিযুদ্ধের সূচনালগ্নে ১৯৭১ সালের ২৫ মার্চের কালরাতে পাকিস্তানি শাসকগোষ্ঠী বঙ্গবন্ধুকে গ্রেপ্তার করে পাকিস্তানে নিয়ে যায়। ৯ মাস মুক্তিযুদ্ধের মধ্য দিয়ে দেশ স্বাধীন হওয়ার পর পাকিস্তানের বন্দিদশা থেকে মুক্তি পেয়ে ১৯৭২ সালের এই দিনে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান লন্ডন-দিল্লি­ হয়ে দেশে ফিরে আসেন তিনি। বাঙালিকে পরাধীনতার শিকল থেকে মুক্ত করে একটি স্বাধীন দেশ এনে দেওয়ার লড়াইয়ে এ মহানায়কের দেশে ফেরার দিনটি এক অনন্য ক্ষণ। শ্রদ্ধা এবং ভালবাসায় এই দিনটিকে স্মরণ করল কুমিল্লা মহানগর আওয়ামীলীগ। বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসের আলোচনা সভায় বক্তারা বলেন বঙ্গবন্ধুর জন্ম না হলে কখনই বাংলাদেশ স্বাধীন হত না। এই বাংলাদেশকে পাকিস্তানের নিপীড়ন নির্যাতন থেকে মুক্ত করার আন্দোলনে নেতৃত্ব দেওয়ার কারণে বঙ্গবন্ধুকে অসংখ্যবার কারাবন্দি করা হয়েছে। তার পরও তিনি প্রতিটি মুহুর্তে স্বপ্ন দেখেছেন এই বাংলাদেশের মানুষকে এবং বাংলাদেশকে স্বাধীনতা এনে দেওয়ার এবং তিনি সফল হয়েছিলেন। বক্তারা বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে ধারণ করে সোনার বাংলা গড়ার লক্ষ্যে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহবান জানান।

স্বদেশে ফিরে জনগণনন্দিত শেখ মুজিবুর রহমান সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে এক সমাবেশে বলেন, ‘যে মাটিকে আমি এত ভালোবাসি, যে মানুষকে আমি এত ভালোবাসি, যে জাতিকে আমি এত ভালোবাসি, আমি জানতাম না সে বাংলায় আমি যেতে পারব কি না। আজ আমি বাংলায় ফিরে এসেছি, বাংলার ভাইয়েদের কাছে, মায়েদের কাছে, বোনদের কাছে। বাংলা আমার স্বাধীন, বাংলাদেশ আজ স্বাধীন।’

আলোচনা সভায় মহানগর আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি এড. জহিরুল ইসলাম সেলিমের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন মহানগর আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি আবদুল আলিম কাঞ্চন, এড. আবদুল বাকী আনিছ, সাধারণ সম্পাদক আরফানুল হক রিফাত, পরিবহন শ্রমিক নেতা গোলাম রসুল, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবিদুর রহমান জাহাঙ্গীর, সাংগঠনিক সম্পাদক চিত্ত রঞ্জন ভৌমিক, কুমিল্লা জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল মাহমুদ সহিদ, মহানগর আওয়ামীলীগের ক্রীড়া সম্পাদক আনিসুর রহমান মিঠু, মহানগর আওয়ামীলীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক এড. আমজাদ হোসেন, মহানগর আওয়ামীলীগের পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক কাউন্সিলর সরকার মাহমুদ জাবেদ। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন মহানগর আওয়ামীলীগের প্রচার সম্পাদক জহিরুল কামাল।