লাকসামে এক যুবকের আত্মহত্যা

কুমিল্লার বার্তা ডেস্ক ● কুমিল্লার লাকসাম পৌর এলাকায় ফাঁসিতে ঝুলে মোঃ হৃদয় (২৫) নামের এক যুবক আত্মহত্যা করেছে। জানা যায়, মিশ্রি গ্রামের আবুল কালামের ভাড়াটিয়া রুবেল মিয়া ও মাতা মিনরা বেগমের ছেলে মোঃ হৃদয় (২৫) রবিবার (৭ জানুয়ারী) বিকালে সকলের অজান্তে ঘরের সিলিং ভুতরে গলায় কাপড় পেছিয়ে ফাঁসিতে ঝুলে আত্মহত্যা করে।

তার বাড়ি শরিয়তপুর জেলায় সে লাকসামে রাজ মিস্ত্রির কাজ করতো এবং গত ১ মাস ১৮ দিন পূর্বে লাকসাম উপজেলার কান্দিরপাড় ইউপির মনোহরপুর গ্রামের আবুল হাসেমের মেয়ে মরিয়ম আক্তার (১৯) কে বিয়ে করে।

স্ত্রী মরিয়ম আক্তার কান্না জড়িত কন্ঠে জানায়, শনিবার পর্যন্ত আমি আমার বাবার বাড়িতে ছিলাম। আমার স্বামী আমাকে রবিবার এখানে নিয়ে আসে। আমার স্বামী কেনো আত্মহত্যা করেছে আমি নিজেও জানি না। দুপুরে খাওয়া শেষে আমি হাঁড়ি-পাতিল পরিষ্কার করার জন্য ঘরের বাহিরে যাই। আমি ঘর থেকে বের হলে হঠাৎই তিনি দরজা বন্ধ করে ঘরের ভিতরে থাকে। আমার কাজ শেষ করে এসে দরজায় শব্দ করি এবং না খোলায় ঘরের পিছনের জানালায় গিয়ে তাকে ফাঁসিতে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পাই। আমার চিৎকারে আশেপাশের লোক জড়ো হয়ে দরজা খুলে ঝুলন্ত অবস্থা থেকে তাকে নামিয়ে হাসপাতালে নেয়ার পথে সে মারা যায়। এই মৃত্যুর কারণ এ রিপোর্ট লেখা পর্যান্ত এখনো জানা যায়নি।

স্থানীয় পৌর কাউন্সিলর মোহাম্মদ উল্ল্যাহ বলেন খবর শুনে ঘটনাস্থলে যাই, পুলিশ ঘটনাস্থল পৌঁছেছে এবং আইনী প্রক্রিয়া চলছে।