‘চৌদ্দগ্রামকে শিবির মুক্ত করতে ছাত্রলীগকে ভূমিকা রাখতে হবে’

কুমিল্লার বার্তা ডেস্ক ● রেলপথ মন্ত্রী মোঃ মুজিবুল হক এমপি বলেছেন, ছাত্রলীগের ইতিহাস এক গৌরবজ্জল ইতিহাস। শিক্ষা, শান্তি, প্রগতি এ স্লোগানকে সামনে নিয়ে ৭০ বছর আগে বঙ্গবন্ধু ছাত্রলীগ প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। বঙ্গবন্ধুর হাতে গড়া ঐতিহ্যবাহী এ সংগঠনের একজন কর্মী ছিলাম। বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে বুকে লালন করে ছাত্রলীগের পতাকাতলে এসে আজ অনেকে ইউপি চেয়ারম্যান, মেয়র হয়েছে।

আমার মতো কৃষকের সন্তান মন্ত্রী হয়েছে। বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বাস্তবায়নে, শেখ হাসিনার স্বপ্ন বাস্তবায়নে ছাত্রলীগকে ভূমিকা পালন করতে হবে।

দেশের প্রতিটি দুর্যোগ মোকাবিলায় বাংলাদেশ ছাত্রলীগ অগ্রণী ভূমিকা পালন করেছে। স্কুল, কলেজ ও মাদ্রাসাসহ সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে গিয়ে ছাত্র-ছাত্রীদের কাছে ছাত্রলীগের আদর্শ উদ্দেশ্য সম্পর্কে জানিয়ে তাদেরকে ছাত্রলীগের পতাকাতলে নিয়ে আসতে হবে। সারা চৌদ্দগ্রামকে শিবির মুক্ত করতে হবে।

রোববার সকালে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ৭০তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম উপজেলা ছাত্রলীগের উদ্যোগে আয়োজিত বিশাল ছাত্রসমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

অনুষ্ঠানের প্রধান বক্তা ছিলেন কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসাইন। উপজেলা ছাত্রলীগের আহবায়ক তৌফিকুল ইসলাম সবুজের সভাপতিত্বে চৌদ্দগ্রাম হাইস্কুল মাঠে আয়োজিত ছাত্রসমাবেশে অন্যান্যের মাঝে আরো বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক সামছুদ্দিন আহম্মেদ চৌধুরী সেলিম, পৌর মেয়র মিজানুর রহমান, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান এ বি এম এ বাহার।

উপজেলা আওয়ামীলীগ নেতা জি এম মির হোসেন মিরু, ভ ম আফতাবুল ইসলাম, আকতার হোসেন পাটোয়ারী, ইউপি চেয়ারম্যান জি এম জাহিদ হোসেন টিপু, উপজেলা যুবলীগের আহব্বায়ক শ্রীপুর ইউপি চেয়ারম্যান শাহজালাল মজুমদার, চেয়ারম্যান সৈয়দ আহম্মদ ভূঁইয়া খোকন, চেয়ারম্যান মাহবুব হোসেন মজুমদার, কাশিনগর ইউপি চেয়ারম্যান মোশারেফ হোসেন, চেয়ারম্যান একরামুল হক, চেয়ারম্যান মাহফুজ আলম, চেয়ারম্যান জয়নাল আবেদীন খোরশেদ, চেয়ারম্যান জাফর ইকবাল, চেয়ারম্যান কাজী জাফর, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক নেতা সাইফুল ইসলাম, কামরুল ইসলাম মুরাদ, ইসমাইল হোসেন শাহিন, অহিদুর রহমান জয়, হাবিবুর রহমান সুমন, জগন্নাথ বিশ^বিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক শেখ জয়নাল আবেদীন রতন, কুমিল্লা জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আবু তৈয়ব অপি, সাধারন সম্পাদক লোকমান হোসেন রুবেল, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মারুফ হোসেন মজুমদার প্রমুখ।

খালেদা জিয়াকে পেট্রোল বোমার আবিস্কারক আখ্যায়িত করে তাকে গ্রেফতারের দাবী জানিয়ে প্রধান বক্তার বক্তব্যে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সাধারন সম্পাদক জাকির হোসাইন বলেন, পোষাকে আধুনিক হলে চলবে না, ব্যবহার দিয়ে মানুষের মন জয় করতে হবে।

তিনি বলেন, ছাত্রদের হৃদয় জয় করতে পেরেছে বলেই একসময়ের সন্ত্রাসের জনপদখ্যাত এ চৌদ্দগ্রামকে শান্তির জনপদে রুপান্তর করতে পেরেছে ছাত্রলীগ। জাতির জনকের আদর্শ চৌদ্দগ্রামের প্রতিটি ঘরে ঘরে পৌছেছে বলে আজকের এ সমাবেশ প্রমাণ করে।