কুমিল্লায় চাঁদা না দেয়ায় সন্ত্রাসী হামলায় স্বাস্থ্যকর্মী আহত

কুমিল্লার বার্তা ডেস্ক ● কুমিল্লায় দাবিকৃত চাঁদা না দেয়ায় সন্ত্রাসী হামলায় সাইফুল ইসলাম নামের এক সিএইচসিপি আহত হয়েছেন। তিনি চৌদ্দগ্রাম উপজেলার গুণবতী ইউনিয়নের চাপালিয়াপাড়া কমিউনিটি ক্লিনিকে কর্মরত ও পাশ্ববর্তী রাজবল্লবপুর গ্রামের পুলিশ কনষ্টেবল সায়েদুল হকের পুত্র। শনিবার বেলা আড়াইটায় গুণবতী-চাপালিয়াপাড়া সড়কের কৈতরা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার শেষে চৌদ্দগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। তবে কি পরিমাণ চাঁদা দাবি করেছিল তা উল্লেখ করেনি আহত সাইফুল ও তার পরিবার। জানা গেছে, দীর্ঘদিন ধরে বুধড়া গ্রামের আমির হোসেনের পুত্র সন্ত্রাসী আলাউদ্দিন সবুজের নেতৃত্বে একটি দল সিএইচসিপি সাইফুল ইসলামের নিকট চাঁদা দাবি করে আসছিল।

দাবিকৃত চাঁদা না দেয়ায় শনিবার বিকেলে ক্লিনিকে ডিউটি শেষে সাইফুল বাড়ি ফেরার পথে গুণবতী-চাপালিয়াপাড়া সড়কের কৈতরা এলাকায় পূর্ব থেকে ওঁৎপেতে থাকা সবুজের নেতৃত্বে ৫/৬ জনের সন্ত্রাসীদল তার গতিরোধ করে। পরে সন্ত্রাসীরা দেশীয় অস্ত্রসস্ত্র দিয়ে এলোপাতাড়ি পিটিয়ে সাইফুলের মাথাসহ পুরো শরীরে গুরুতর জখম করে।

এসময় সন্ত্রাসীরা তার সাথে থাকা নগদ টাকা ও দুইটি মোবাইল সেট ছিনিয়ে নেয়। খবর পেয়ে সাইফুলের স্বজনসহ স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার শেষে চৌদ্দগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।

এ ব্যাপারে চৌদ্দগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স কর্মকর্তা ডাঃ নাছির উদ্দিন ও আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাঃ মনিরুল ইসলাম মিলন জানান, দুস্কৃতিকারীদের হামলায় সিএইচসিপি সাইফুল ইসলাম আহত হওয়ার খবর শুনেছি। বর্তমানে সে হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে বলেও জানান তারা।

অপরদিকে কুমিল্লা জেলা সিভিল সার্জন ডাঃ মজিবুর রহমান বলেন, পুলিশ প্রশাসনের সাথে কথা বলে দুস্কৃতিকারীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।