কুমিল্লা চ্যাম্পিয়ন হবেই, এটা আমার চ্যালেঞ্জ —নাফিসা কামাল

কুমিল্লার বার্তা ডেস্ক ● কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের চেয়ারপার্সন নাফিসা কামাল বলেছেন, আগামীতে বিপিএল চ্যাম্পিয়ন হবে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স, এটা আমার চ্যালেঞ্জ । এই কাপ আবার কুমিল্লায় ফিরিয়ে আনবো। রবিবার (১৭ ডিসেম্বর) বিকালে কুমিল্লার সদর দক্ষিণের একটি রেস্তোরাঁয় কুমিল্লা জেনিস একাডেমী কাপ ক্রিকেট টুর্নামেন্টের ট্রফি উন্মোচন উপলক্ষে আয়োজিত সাংবাদিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

নাফিসা কামাল বলেন, নিয়মানুযায়ী আমাদের ফাইনাল খেলার কথা। কিন্তু হয়নি। বিপিএলের ৯টি খেলায় কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স জিতেছে । পয়েন্টে শীর্ষে থাকলেও আমরা ফাইনালে যেতে পারিনি, অনাকাঙ্ক্ষিত মানসিক চাপ ছিল। আমাদের দলের অধিনায়ক তামিম চাপে ছিল। তাকে শোকজ করা হয়েছিল । শোকজের জবাব দেওয়ার কথা চিন্তে করে টেনশন নিয়ে তাকে মাঠে খেলতে হয়েছে। আমাদের কোচকেও জবাবাদিহী করতে হয়েছে। ওই খেলায় আমাদের সামনে দুটি অপশন ছিল। হয় খেলেন, নয়তো মাঠ ছেড়ে চলে যান। এই টিম চালানো অনেক কষ্টের । মাঠের বাইরেও আমাদের লড়াই করতে হয়েছে।

 

তিনি বলেন, আমি কুমিল্লার গর্ব না, কুমিল্লা আমার গর্ব। কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স আমাদের সকলের গর্ব। কাউকে দোষ দিয়ে লাভ নেই। শক্তি, অদম্য সাহস আর লড়াই করে আমাদেরকে সামনের দিকে এগুতে হবে। আগামীতে আমরা চ্যাম্পিয়ন হবোই হবো। মাঠে লড়াই করেই কাপ আবার ঘরে নিয়ে আসবো।

সদ্য সমাপ্ত বিপিএল নিয়ে কথা বলতে গিয়ে কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের চেয়ারপার্সন নাফিসা কামাল। তিনি বলেন, বিভিন্ন সমস্যার কারনে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স বিজয়ী ট্রফি নিয়ে আসতে পারিনি। এজন্য কুমিল্লাবাসীর নিকট দুঃখ প্রকাশ করছি। আমাদের ভুল ত্রুটি থাকতে পারে, তবে আন্তরিকতার কোনো ঘাটতি ছিলো না।

এ সময় তিনি তার বাবা পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের ক্রিকেট এবং বিপিএল নিয়ে অবদানের কথা তুলে ধরে বলেন, বাবা ক্রিকেটের জন্য অনেক করেছেন। এই বিপিএল বাবাই শুরু করেছেন।

সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন নাফিসা কামালের জ্যেষ্ঠ বোন কাশমী কামাল, সদর দক্ষিণ উপজেলা চেয়ারম্যান গোলাম সারওয়ার, জেনিস’র সত্ত্বাধিকারী মো. হান্নান খান মোহন, হাফিজুল্লাহ খোকন, কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স ট্যালেন্ট হান্ট একাডেমীর হেড কোচ আতিকুর রহমান প্রমুখ।

কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স ট্যালেন্ট হান্ট ক্রিকেট একাডেমীর ব্যবস্থাপনায় এবং কুমিল্লা জেলা ক্রীড়া সংস্থার সহযোগিতায় কুমিল্লা কোটবাড়িস্থ বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন একাডেমীর মাঠে আগামী ২৩ ডিসেম্বর থেকে ৮টি দলের অংশগ্রহণে জেনিস একাডেমী কাপ ক্রিকেট টুর্নামেন্টের খেলা শুরু হবে।

দলগুলো হচ্ছে- কুমিল্লা ক্রিকেট কোচিং সেন্টার (গ্রিন), কুমিল্লা ক্রিকেট কোচিং সেন্টার (রেড), ক্রিকেটার্স কুমিল্লা (গ্রিন), ক্রিকেটার্স কুমিল্লা (রেড), স্টার ক্রিকেট একাডেমী, কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স ট্যালেন্ট হান্ট একাডেমী (গ্রিন), কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স ট্যালেন্ট হান্ট একাডেমী (রেড) ও আবদুর রাজ্জাক মেমোরিয়াল ক্রিকেট একাডেমি।