কুমিল্লায় আবাসিক হোটেল থেকে ৮ নারী আটক

হাজারিকা প্রতিদিন ● পুলিশ হেড কোয়ার্টাস এর উর্ধতন কর্তৃপক্ষ দ্বারা পরিচালিত-নাগরিক সেবার মান বৃদ্ধিকরনে ৯৯৯ জরুরী সেবার তথ্যের আলোকে কুমিল্লা কোতয়ালী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ আবু ছালাম মিয়ার নেতৃত্বে এসআই কায়সার হামিদ থানার সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে কুমিল্লা আর্দশ সদর উপজেলার আলেখারচর বিশ্বরোড নীলপদ্ধ হোটেলে অভিযান চালিয়ে ৮ নারীকে আটক করে।

পুলিশের তথ্য মতে জানা যায়- বৃহস্পতিবার গভীর রাতে হোটেল নীলপদ্ধে অভিযান চালায় কুমিল্লা কোতয়ালী থানা পুলিশ, হোটেলে অনৈতিক কার্যকালাপের দ্বায়ে ০৮ নারীকে আটক করা হয়।

আটককৃত ব্যক্তিরা হলেন- কক্সবাজার জেলার ঝুমছড়ি গ্রামের মৃত.মুসলিম মিয়ার মেয়ে রেহেনাবেগম (২৮), নেত্রকোনা জেলার দূর্গাপুর গ্রামের জয়নাল আবেদীনের মেয়ে আখি আক্তার(২০), নারায়নগঞ্জ জেলার লক্ষীপুর গ্রামের সমু চেয়ারম্যানের বাড়ীর মৃত. আব্দুল বাতেন এর মেয়ে মিতু(২৬), রাজবাড়ী জেলার বৃত্তিডাঙ্গা গ্রামের মৃত. শাহজাহানের মেয়ে রুমা আক্তার(২৬), ভোলা জেলার দুলারহাটা গ্রামের আলী হোসেনের মেয়ে মিতু আক্তার(৩০), বরিশাল জেলার পিংলাকাটি গ্রামের মৃত.আলমগীর খানের মেয়ে সুমি বেগম(৩২),চাঁদপুর জেলার খেউল্লাবাদ গ্রামের মৃত. সেলিম মিয়ার পুত্র পারভিন আক্তার(৩৫), কুমিল্লা জেলার ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার দক্ষিণ বাগড়া গ্রামের ফকির বাড়ির সুজন মিয়ার স্ত্রী সুমি আক্তার(২৭)।

আসামীদ্বয়কে বি আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরন করা হয়। এ বিষয়টি কোতয়ালী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ আবু ছালাম মিয়া বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন- ৯৯৯ জরুরী সেবার গোপন তথ্যের আলোকে কোতয়ালী থানা পুলিশ কর্তৃক নীলপদ্ধ হোটেলে অভিযান চালানো হয় এবং অনৈতিক কার্যকালাপের দ্বায়ে ৮ নারী সদস্যকে কৌশলে আটক করা হয়।

এদিকে নীলপদ্ধ হোটেলে পুলিশের অভিযানের তৎপরতা দেখে হোটেল কর্মচারীরা বিল্ডিং এর দেয়াল হতে লাফ দিয়ে পালিয়ে যায়।